Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪
4 members of a family murdered

টাকাপয়সা নিয়ে বিবাদ, একই পরিবারের চার জনকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে খুন করার অভিযোগ

পুলিশ জানিয়েছে, এলাকায় লাগানো সিসিটিভির ফুটেজ পরীক্ষা করে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

representational image

— প্রতীকী ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
চেন্নাই শেষ আপডেট: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৯:৪৭
Share: Save:

টাকাপয়সা নিয়ে বিবাদে একই পরিবারের চার জনকে খুন করার অভিযোগে উত্তাল তামিলনাড়ুর তিরুপ্পুর জেলা। এখনও এই ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

তিরুপ্পুরের পাল্লাদামের বাসিন্দা ৪৭ বছরের সেন্থিলকুমার চাল ব্যবসায়ী। তাঁর কৃষিজমিও রয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় তিনি খবর পান, তাঁর চাষের জমিতে কয়েক জন বসে মদ্যপান করছেন। শুনেই তিনি জমির উদ্দেশে রওনা দেন। গিয়ে দেখেন, কয়েক জন বসে সেখানে মদ্যপান করছেন। সেন্থিলকুমার তাঁদের জমি ছেড়ে চলে যেতে বলেন। কিন্তু অভিযোগ, উঠে যাওয়ার পরিবর্তে তাঁরা সেন্থিলকুমারের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় তাঁকে। চিৎকার শুনে ছুটে আসেন সেন্থিলকুমারের তিন আত্মীয় মোহনরাজ, রথিনাম্বল এবং পুষ্পাবতী। তাঁদেরও ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় বলে অভিযোগ। চার জনেরই মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলে। আশপাশের লোকজন মাঠে আসতে শুরু করলে পালায় অভিযুক্তেরা।

জানা গিয়েছে, কুট্টি নামে এক ব্যক্তি সেন্থিলকুমারের চালের দোকানে কাজ করতেন। কোনও কারণে তিনি কাজটি হারান। অভিযোগ, সেন্থিলকুমারের কাছে থেকে কিছু টাকা ধার নিয়েছিলেন কুট্টি। সেই টাকা ফেরত চেয়ে চাপ দিচ্ছিলেন সেন্থিলকুমার। পাওনাদারের তাগাদার হাত থেকে বাঁচতে সেন্থিলকুমারকে খুনের ছক কষেন তিনি। কুট্টি একটি দল ভাড়া করেন সেন্থিলকুমারকে খুন করতে। কিন্তু ঘটনাচক্রে, সেন্থিলের পাশাপাশি ওই পরিবারের আরও তিন জনকে খুনের ঘটনা ঘটে।

পাল্লাদামের ডিএসপি এস সৌম্য বলেন, ‘‘তদন্ত শুরু হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আমরা এখনও জানতে পারিনি, ঠিক কত জন দুষ্কৃতী মিলে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE