×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০২ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

GST on COVID Vaccine: কোভিড টিকার উপর জিএসটি থাকছে, ছাড় ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধে, ঘোষণা সীতারামনের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১২ জুন ২০২১ ১৬:১৯
কোভিড টিকার উপর বহাল থাকছে জিএসটি।

কোভিড টিকার উপর বহাল থাকছে জিএসটি।
—ফাইল চিত্র।

আবেদন, অনুরোধ জমা পড়েছে ভূরি ভূরি। কিন্তু কোভিড টিকার উপর থেকে পণ্য পরিষেবা কর (জিএসটি) তুলে নেওয়ার প্রশ্নই নেই বলে এ বার জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের যুক্তি, টিকা কেনার দায়িত্ব নিজের হাতে তুলে নিয়েছে কেন্দ্র। তাই এ ক্ষেত্রে জিএসটি তুলে নেওয়ার যুক্তি খাটে না।

শনিবার কোভিড টিকা এবং সরঞ্জামের উপর থেকে জিএসটি তুলে নেওয়া নিয়ে বৈঠক ছিল। বৈঠক মিটতেই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘কোভিড টিকার উপর ৫ শতাংশ জিএসটি বহাল থাকছে। ঘোষণা মতো কেন্দ্রই ৭৫ শতাংশ টিকা কিনবে। তার জন্য জিএসটি-ও দেবে। তবে জিএসটি থেকে যে আয় হবে, তার ৭০ শতাংশই রাজ্যগুলির সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া হবে।’’

তবে কোভিড চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের উপর জিএসটি কমানোর আবেদন মঞ্জুর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সীতারামন। তিনি জানিয়েছেন, দেহের তাপমাত্রা মাপার সরঞ্জামের উপর ৫ শতাংশ জিএসটি নেওয়া হবে। অ্যাম্বুল্যান্সের উপর জিএসটি নেওয়া হবে ১২ শতাংশ। তবে আরটিপিসিআর যন্ত্র, আরএনএ এক্সট্র্যাকশন যন্ত্র, জিনোম সিকোয়েন্সিং যন্ত্রের উপর আগের মতোই ১৮ শতাংশ জিএসটি বহাল থাকবে। জিনোম সিকোয়েন্সিং কিটের উপর আগের মতোই ১২ শতাংশ জিএসটি নেওয়া হবে।

Advertisement

পাল্‌স অক্সিমিটারের উপর থেকেও জিএসটি কমিয়ে ১২ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। হ্যান্ড স্যানিটাইজারের উপর এ বার থেকে ১৮ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ জিএসটি বসবে।

কোভিড পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম তৈরির কাঁচামালের উপর জিএসটি-ও একচুল কমানো হবে না বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। তবে কোভিড পরীক্ষার কিটের উপর ১২ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ জিএসটি বসবে। মেডিক্যাল গ্রেড অক্সিজেন, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, এবং অক্সিজেন জেনারেটরের উপর জিএসটি-ও ১২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য ভেন্টিলেটর, ভেন্টিলেটর মাস্ক, বাইপ্যাপ যন্ত্রের উপরও ৫ শতাংশ জিএসটি থাকছে।

করোনার চিকিৎসা ব্যবহৃত রেমডেসিভিরের উপর জিএসটি কমিয়ে ১২ থেকে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। হেপারিনের উপরও ১২ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ জিএসটি নেওয়া হবে। করোনার চিকিৎসার জন্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক যে যে ওষুধের সুপারিশ করবে, সে সবের উপরই ৫ শতাংশ জিএসটি বসবে।তবে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধ টসিলিজুমাব এবং অ্যাম্ফোটেরিসিন বি-র ওপর কোনও জিএসটি নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

Advertisement