×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

বন্ধ গো-বিজ্ঞান পরীক্ষা

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৭:০২
—প্রতীকী ছবি।

—প্রতীকী ছবি।

দেশ জুড়ে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়ে অনির্দিষ্ট কালের জন্য গো-বিজ্ঞান পরীক্ষা বাতিল করে দিল রাষ্ট্রীয় কামধেনু আয়োগ।

গরু নিয়ে ‘চেতনা’ বাড়াতে দেশের ৯০০ বিশ্ববিদ্যালয়কে রীতিমতো নির্দেশ দিয়ে পরীক্ষা নিতে বলেছিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। বৃহস্পতিবার দেশ জুড়ে সেই ‘গো-বিজ্ঞান পরীক্ষা’ হওয়ার কথা ছিল। অনলাইনে এক ঘণ্টার সেই পরীক্ষার জন্য ইতিমধ্যেই নাম লিখিয়েছেন ৫ লক্ষ লোক। কিন্তু রাষ্ট্রীয় কামধেনু আয়োগের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি যে পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল, তা আপাতত অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। কী কারণে ওই পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হল, তা নিয়ে অবশ্য নীরব সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

দেশ জুড়ে বিজ্ঞান চর্চার অগ্রগতি হোক না হোক, বৈজ্ঞানিক গবেষণা খাতে ব্যয় বরাদ্দ যতই কমুক, নরেন্দ্র মোদী সরকারের জমানায় গরুদের কদর বিলক্ষণ বহু গুণ বেড়েছে। কেউ গরুর দুধে সোনা পাচ্ছেন, তো কেউ পরমাণু বিকিরণ ঠেকাতে গোবরের সুপারিশ করছেন। তারই মধ্যে আমজনতার করের টাকায় এমন একটি পরীক্ষার উদ্যোগ চালু হওয়ায় চরম ক্ষুব্ধ বিজ্ঞানীমহল। বিজ্ঞানের অধ্যাপকেরা প্রতিবাদে সরব হওয়ায় পরীক্ষা নিতে অপারগতার কথা জানিয়ে দেয় একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়।

Advertisement
Advertisement