Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Bhopal Fire

ভোপালে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে জ্বলছে সরকারি ভবন, বায়ু সেনার কাছে সাহায্যের আর্জি শিবরাজের

সোমবার বিকেল ৪টে নাগাদ ভোপালের সাতপুরা ভবনের তিনতলায় অবস্থিত আদিবাসী কল্যাণ দফতরের আঞ্চলিক কার্যালয়ে আগুন লাগে। দ্রুত সেই আগুন উপরের তিনটি তলাতেও ছড়িয়ে পড়ে।

Satpura Building Fire

বিকেল থেকে আগুন জ্বলছে সাতপুরা ভবনে। ছবি: পিটিআই।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
ভোপাল শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২৩ ০২:১৯
Share: Save:

বিকেল ৪টে নাগাদ আগুন লেগেছিল। সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত তা নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপালের সাতপুরা ভবনে ঘণ্টারসপর ঘণ্টা ধরে জ্বলছে আগুন। সেই আগুন নেভাতে অবশেষে বায়ু সেনার শরণাপন্ন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান। ফোন করলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে। কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও। প্রধানমন্ত্রীকে ঘটনার কথা বিস্তারিত জানান শিবরাজ। ভারতীয় বায়ু সেনার একটি বিশেষ বিমান এই আগুন নেভাতে সোমবার গভীর রাতেই ভোপালে পৌঁছবে।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি সূত্রে খবর, সোমবার বিকেল ৪টে নাগাদ ভোপালের সাতপুরা ভবনের তিনতলায় অবস্থিত আদিবাসী কল্যাণ দফতরের আঞ্চলিক কার্যালয়ে আগুন লাগে। দ্রুত সেই আগুন উপরের তিনটি তলাতেও ছড়িয়ে পড়ে। ওই ভবনে থাকা বেশ কয়েকটি বাতানুকূল যন্ত্র এবং গ্যাস সিলিন্ডারও আগুনের সংস্পর্শে আসে। বিস্ফোরণও হয়। আদিবাসী কল্যাণ দফতর এবং তার উপরে থাকা স্বাস্থ্য দফতরের সমস্ত কাগজপত্র আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে বলে খবর। অফিসের সমস্ত কর্মী সুরক্ষিত অবস্থায় সময়মতো ওই ভবনের বাইরে চলে আসতে পেরেছিলেন। সরকারি সূত্র অনুয়ায়ী, সাতপুরা ভবনে আদিবাসী কল্যাণ, স্বাস্থ্য এবং পরিবহণ তিনটি সরকারি দফতরের অফিস ছিল। তিনটি দফতরই ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সোমবার রাতেই একটি এএন-৩২ বিমান এবং একটি এমআই-১৫ চপার ভোপালের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সাতপুরা ভবনের উপর জল ফেলে আগুন নেভানোর চেষ্টা করবে তারা। গোটা পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজও। এই আগুনের ঘটনার তদন্তের জন্য একটি কমিটিও গঠন করেছেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE