Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
national animal

Cow: গরুই হোক জাতীয় পশু, পাক মৌলিক অধিকারও, সুপারিশ ইলাহাবাদ হাই কোর্টের

মামলার শুনানির পর ‘উত্তরপ্রদেশ গোহত্যা বিরোধী আইনে’ অভিযুক্ত জাভেদের জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি শেখরকুমার যাদব।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
ইলাহাবাদ (প্রয়াগরাজ) শেষ আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২০:৫৬
Share: Save:

গরুকে জাতীয় পশু করার পক্ষে সওয়াল করল ইলাহাবাদ হাই কোর্ট। বুধবার বিচারপতি শেখরকুমার যাদব গোহত্যা সংক্রান্ত একটি মামলায় অভিযুক্তের জামিনের আবেদনের শুনানিতে বলেন, ‘‘গরু ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি ভাবে জড়িত। তাই গরুকেই দেশের জাতীয় পশু করা উচিত।’’

ওই মামলার শুনানির পর ‘উত্তরপ্রদেশ গোহত্যা বিরোধী আইনে’ অভিযুক্ত জাভেদ নামে এক ব্যক্তির জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি যাদব। জামিন খারিজের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে জানান, গরু সম্পর্কে ভারতীয় সমাজে ভাবাবেগ রয়েছে। অভিযুক্তকে জামিন দেওয়া হলে সামাজিক সম্প্রীতি বিঘ্নিত হবে। ভারতীয় নাগরিকদের মতোই গরুর মৌলিক অধিকার সুরক্ষিত করতে সংসদ বিল পাশ করিয়ে নতুন আইন প্রণয়নেরও সুপারিশ করেন তিনি। সে ক্ষেত্রে সংবিধানে মৌলিক অধিকার হিসেব স্বীকৃত হবে গো রক্ষার অধিকার। বিচারপতির মন্তব্য, ‘‘গরুর ভাল হলে তবেই দেশের ভাল হবে।’’

২০১৭ সালে রাজস্থান হাইকোর্টের বিচারপতি মহেশচন্দ্র শর্মা একটি মামলার শুনানিতে গরুকে ‘মাতা’ বর্ণনা করে বলেছিলেন, ‘‘গোহত্যার চেয়ে বড় অপরাধ আর কিছুই হতে পারে না।’’ সংবিধানের ৪৮ ও ৫১এ(জি) ধারা অনুযায়ী গরুকে জাতীয় পশুর আইনি মর্যাদা দেওয়া যেতে পারে বলেও জানান তিনি। সে সময়ই জাতীয় পাখি ময়ূরের ‘মহিমা’র কথা বলতে গিয়ে বিচারপতি শর্মার মন্তব্য ছিল, ‘‘ময়ূর আজীবন ব্রহ্মচারী থাকে। অশ্রুতেই ময়ূরীর সঙ্গে তার মিলন ঘটে।’’ প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে হিন্দু ধর্মগুরু ও সন্তদের একটি সভাতেও বাঘকে সরিয়ে গরুকে জাতীয় পশুর শিরোপা দেওয়ার দাবি উঠেছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.