×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

ব্রিটেনে ৫০ লক্ষ টিকার রফতানিতে কেন্দ্রের ‘না’, আগের হিসেব চাইল কংগ্রেস

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১১ মে ২০২১ ১৮:১২
প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

সেরামের তৈরি ৫০ লক্ষ করোনা টিকার রফতানি আটকাল কেন্দ্র। দেশে টিকার ঘাটতির কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত, জানিয়েছে কেন্দ্র। যদিও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করে কংগ্রেসের প্রশ্ন, এর আগে সাড়ে ছ’কোটি টিকা বিদেশে রফতানি করার আগে কেন্দ্রের এই বোধোদয় হয়নি কেন?

পূর্ব নির্ধারিত চুক্তি অনুযায়ী এই টিকা সেরাম ইনস্টিটিউটের তরফে দেওয়ার কথা ছিল ব্রিটেনকে। ৫০ লক্ষ কোভিশিল্ড ব্রিটেনে পৌঁছে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের কাছে চিঠি দিয়ে অনুমতিও চেয়েছিল সেরাম। মঙ্গলবার সেই আবেদন খারিজ করেছে কেন্দ্র।

দেশে টিকার ঘাটতির কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। যদিও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে কার্যত দেরিতে ঘুম ভাঙা বলে কটাক্ষ করেছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের মুখপাত্র অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘এর আগে যখন ৬.৬ কোটির বেশি টিকা ৯৩টি দেশকে রফতানি করা হয়েছিল, তখন কেন্দ্রের এই বোধ কোথায় ছিল’?

মঙ্গলবার এ নিয়ে একটি টুইট করেন অভিষেক। লেখেন, ‘এর আগে ‘প্রতিষেধক মৈত্রী’ প্রকল্পে যে ৯৩টি দেশকে ৬ কোটি ৬০ লক্ষ টিকা কেন্দ্র দিয়েছিল, তাদের ৬০ শতাংশেরই করোনা সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা ভারতের থেকে অনেক কম’। কেন্দ্রের এই অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুলে কংগ্রেস জানতে চেয়েছে, ‘ভ্যাকসিন মৈত্রী হয়ে যাওয়ার পর এই অবস্থান কেন’!

প্রসঙ্গত মঙ্গলবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবালও দেশের টিকা বিদেশে পাঠানোর ব্যাপারে কেন্দ্রের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। দিল্লি-সহ অধিকাংশ রাজ্যই টিকার অভাবের কথা জানিয়েছে কেন্দ্রকে। দিল্লিতে আর দু’দিনের মধ্যেই টিকার মজুত শেষ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন কেজরীবাল।

Advertisement
Advertisement