Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Srinagar

ঘোড়ায় চড়ে পার্সেল দিয়ে গেলেন ডেলিভারি পার্সন, এ দেশেই দেখা গেল এমন দৃশ্য

শপিং অ্যাপের কাস্টমার কেয়ারে বার বার ফোন যাচ্ছে। আবেদন করছেন, চিকিৎসা সংক্রান্ত, শিশুদের খাবার, বই বা অন্যান্য যে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস অর্ডার করেছেন সেগুলি যাতে কষ্ট করে হলেও পৌঁছে দেওয়া যায়।

শিরাজ আলি খান। টুইটার থেকে নেওয়া ছবি।

শিরাজ আলি খান। টুইটার থেকে নেওয়া ছবি।

সংবাদ সংস্থা
শ্রীনগর শেষ আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ১৭:৪৫
Share: Save:

আপনার বাড়িতে কোনও ডেলিভারি বয় ঘোড়ায় চড়ে পার্সেল দিতে এসেছেন কখনও? ভাবছেন, সিনেমায় বা বিদেশে হতে পারে এমন! না, আমাদের দেশেই অ্যামাজনের এক ডেলিভারি পার্সন ঘোড়ায় চড়ে বাড়িতে বাড়িতে পার্সেল দিয়ে গিলেন। তবে এর পিছনে রয়েছে কৌতূহল উদ্রেককারী এক কাহিনি।

Advertisement

কাশ্মীরে তুষারপাত চলছে। ফলে যাতায়াতের ক্ষেত্রে সবাইকে বেশ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছেন বিভিন্ন শপিং অ্যাপের ডেলিভারি বয়রাও। বেশ কিছু দিন ধরে বরফের মধ্যে দিয়ে লোকালয়ের সরু রাস্তায় বাইক নিয়ে ঢুকতে পারছেন না তাঁরা। ফলে পরিষেবা বন্ধ রয়েছে।

পরিষেবা বন্ধ থাকলেও প্রয়োজন তো আর থেমে থাকছে না সাধারণ মানুষের! শপিং অ্যাপের কাস্টমার কেয়ারে বার বার ফোন যাচ্ছে। আবেদন করছেন, চিকিৎসা সংক্রান্ত, শিশুদের খাবার, বই বা অন্যান্য যে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস অর্ডার করেছেন সেগুলি যাতে কষ্ট করে হলেও পৌঁছে দেওয়া যায়।

এমন আবদেনের কথা জানতে পেরে শিরাজ আলি খান নামে এক ডেলিভারি পার্সন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি জানান, বরফ পড়ে দুর্গম হয়ে যাওয়া ওই সব জায়গায় তিনি তাঁর নিজের ঘোড়া নিয়ে পৌঁছে যেতে পারবেন। কয়েক মাস আগেই একটি ঘোড়া কিনেছেন স্নাতক তৃতীয় বর্ষের ছাত্র শিরাজ। সব রকম নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে শিরাজকে ঘোড়ার পিঠে চড়ে ডেলিভারি করার অনুমতি দেন অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ।

Advertisement

শিরাজ সেই সব বরফ ঢাকা পথে ঘোড়ায় চড়ে এগিয়ে গিয়েছেন। বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন পার্সেল। তাঁর এই অভিনব ডেলিভারির ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর শিরাজের এমন কাজের প্রশংসা করতে ভোলেননি নেটাগরিকরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.