Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Pragya Thakur

Covid in India: রোজ নিয়ম করে গোমূত্র পান করলেই গায়েব করোনা! নিদান বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞার

রোজ নির্দিষ্ট পরিমাণ দেশি গরুর মূত্র পান করেই নাকি তিনি নিজের শরীরে করোনা ভাইরাসকে বাসা বাধতে দেননি।

প্রজ্ঞা ঠাকুর। -ফাইল চিত্র।

প্রজ্ঞা ঠাকুর। -ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
ভোপাল (মধ্যপ্রদেশ) শেষ আপডেট: ১৭ মে ২০২১ ১৭:৪১
Share: Save:

এ বার গোমূত্রে কোভিড সারানোর নিদান দিলেন বিজেপির আরও এক বিধায়ক। রোজ নির্দিষ্ট পরিমাণ দেশি গরুর মূত্র পান করেই নাকি তিনি নিজের শরীরে করোনা ভাইরাসকে বাসা বাধতে দেননি। এমনই দাবি করলেন বিজেপির ভোপালের সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর।

Advertisement

সোমবার একটি দলীয় সভায় তিনি বলেন, ‘‘আমরা যদি রোজ দেশি গরুর মূত্রপান করি তাহলে কোভিডে আক্রান্ত ফুসফুসও সংক্রমণ থেকে মুক্তি পাবে। আমিও অনেক যন্ত্রণায় ছিলাম। কিন্তু রোজ এখন গোমূত্র পান করি তাই করোনার জন্য আর কোনও ওষুধ আমাকে খেতে হয় না। এমনকি আমার করোনাও হবে না।” তাঁর মতে ‘গোমূত্র হল জীবনদায়ী’।

সব সময় গেরুরা পোশাক পরে থাকা প্রজ্ঞা নিজেকে সাধু বলেই সম্বোধন করেন। গোমূত্রের প্রতি তিনি বরাবরই আস্থা রাখেন। বছর দুই আগে যেমন দাবি করেছিলেন, গোমূত্রের সঙ্গে গরু থেকে প্রাপ্ত অন্যান্য উপাদান মিশিয়ে খেয়ে তিনি শরীরে বাসা বাঁধা ক্যানসার রোগ সারিয়ে ফেলেছিলেন। তবে রোজ গোমূত্র পান করা বিজেপির এই সাংসদকে ২০২০ সালের ডিসেম্বরে করোনার লক্ষণ নিয়ে দিল্লির এমস-এ ভর্তি হতে হয়েছিল।

শুধু প্রজ্ঞা একাই নন, গোমূত্রে বিশ্বাস রাখেন উত্তরপ্রদেশের বিজেপির এক বিধায়কও। চলতি মাসের প্রথম দিকেই সুরেন্দ্র সিংহ নামে ওই বিধায়ক যেমন এক গ্লাস ঠাণ্ডা জলের সঙ্গে গোমূত্র মিশিয়ে রোজ খাওয়ার নিদান দিয়েছিলেন। এমন দাবি শোনা গিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মুখেও। তবে বিজেপি-র নেতাদের মুখে গোমূত্রের প্রশংসা শোনা গেলেও গোমূত্রের পুষ্টিগুণ এবং করোনা প্রতিরোধে এর ব্যবহার কতটা বৈজ্ঞানিক, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েই গিয়েছে। চিকিৎসক মহলও বিজেপি নেতাদের এই দাবি মানতে নারাজ।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.