Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪

ডুববে ‘অচ্ছে দিন’, নিশ্চিত সনিয়া

সংসদে এবং কিছু অনুষ্ঠানে কয়েক মুহূর্তের জন্য দেখা হয় বটে, কিন্তু ব্যক্তি হিসেবে তাঁকে চেনার সুযোগই দেননি মোদী। অথচ বাজপেয়ী জমানাতেও বিরোধীদের সঙ্গে সুসম্পর্কটা ছিল। সনিয়া নিশ্চিত, পরের নির্বাচনে মোদীর ‘অচ্ছে দিন’-এর হাল হবে বাজপেয়ীর ‘ভারত উদয়’-এর মতোই। 

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১০ মার্চ ২০১৮ ০৩:২৩
Share: Save:

সরকারের চার বছর পূর্ণ হতে চলল। ‘ব্যক্তি’ নরেন্দ্র মোদী কেমন, জানেনই না প্রধান বিরোধী দলের নেত্রী সনিয়া গাঁধী!

কারণ? সংসদে এবং কিছু অনুষ্ঠানে কয়েক মুহূর্তের জন্য দেখা হয় বটে, কিন্তু ব্যক্তি হিসেবে তাঁকে চেনার সুযোগই দেননি মোদী। অথচ বাজপেয়ী জমানাতেও বিরোধীদের সঙ্গে সুসম্পর্কটা ছিল। সনিয়া নিশ্চিত, পরের নির্বাচনে মোদীর ‘অচ্ছে দিন’-এর হাল হবে বাজপেয়ীর ‘ভারত উদয়’-এর মতোই।

শুক্রবার মুম্বইয়ে এক অনুষ্ঠানে সনিয়াকে প্রশ্ন করা হয়, ব্যক্তি নরেন্দ্র মোদী কেমন? হাসতে হাসতে সনিয়ার জবাব, ‘‘আমি জানি না। কিন্তু পুরো রামায়ণ পড়ার পরে এখন জিজ্ঞাসা করছেন রাম আর সীতা কে?’’

কোন রামায়ণ? অভিযোগের রামায়ণ! মোদী জমানার দেশের অবস্থা নিয়ে একের পর এক অভিযোগ করে সনিয়া বললেন, ‘‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আমাদের সঙ্গে কথা বলা দূর, নিজের লোকদের থেকেও পরামর্শ নেন কিনা সন্দেহ!’’

মুম্বইয়ের ওই অনুষ্ঠানে সনিয়া ছিলেন অন্য মেজাজে। ছেলের কাজের ধরণ থেকে সাম্প্রতিক বিদেশ সফর নিয়ে বিজেপির কটাক্ষ— সবেরই জবাব দিলেন। কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে জানালেন, হতেও পারে আগামী দিনে গাঁধী পরিবারের বাইরের কারও হাতে গেল কংগ্রেসের দায়িত্ব।

কংগ্রেসের অনেকে বলছেন, সনিয়া নিজে দেখেছেন, গাঁধী পরিবারের বাইরের নেতাকে দলের সভাপতি বা প্রধানমন্ত্রী হতে। এ দিনও বলেছেন, নিজের ‘সীমাবদ্ধতা’ জানতেন বলেই ‘যোগ্য’ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনমোহন সিংহকে বেছে নিয়েছিলেন। যিনি গাঁধী পরিবারের কেউ নন। তাই রাহুল নিয়ে বিজেপির কটাক্ষকে পাত্তাই দেননি।

অবসর কাটছে কী ভাবে? সিনেমা দেখছেন। ইন্দিরা-রাজীবের লেখা অসংখ্য চিঠি ডিজিটাইজ করছেন। ব্যস্ততার জন্য বাকি থাকা বহু কাজ এখন সারছেন সনিয়া গাঁধী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE