Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
IAF

ইরানের বিমানে বোমাতঙ্ক! দিল্লিতে অবতরণ চেয়ে ফোন এল বিমানবন্দরে, তৎপর ভারতীয় বায়ুসেনা

সোমবার সকাল ৯টা ২০ মিনিট নাগাদ দিল্লি বিমানবন্দরে ফোন আসে। মাহান এয়ারের ওই বিমানটি তেহরান থেকে চিনের গুয়াংজ়ুর উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল। বিমানটিতে বোমা আছে বলে জানানো হয়।

ভারতের আকাশে বিমানে বোমাতঙ্ক।

ভারতের আকাশে বিমানে বোমাতঙ্ক। —ফাইল ছবি

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০২২ ১৫:৩০
Share: Save:

ভারতের আকাশ পেরনোর সময় ইরানের বিমানে বোমাতঙ্ক। বিমানের মধ্যে বোমা আছে বলে খবর আসে ভারতীয় বায়ুসেনার কাছে। ভারতের মাটিতে বিমানটি জরুরি অবতরণ করতে চায়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গন্তব্যের উদ্দেশেই যাত্রা করেছে ওই বিমান।

Advertisement

জানা গিয়েছে, সোমবার সকাল ৯টা ২০ মিনিট নাগাদ দিল্লি বিমানবন্দরে ফোন আসে। মাহান এয়ারের ওই বিমানটি তেহরান থেকে চিনের গুয়াংজ়ুর উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল। বিমানটিতে বোমা আছে বলে জানানো হয়। বিমানটি তখন দিল্লির উপরে ছিল। দ্রুত সতর্ক হন দিল্লি বিমানবন্দরের কর্মীরা। ইরানের ওই বিমানটি দিল্লি বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করতে চেয়েছিল। কিন্তু তাতে সবুজ সঙ্কেত দেয়নি নয়াদিল্লি।

রাজধানীতে নামতে না দিলেও ইরানের বিমানটিকে ভারতের তরফে দু’টি বিকল্প সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। জয়পুর অথবা চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা বলা হয়েছিল তাদের। কিন্তু ওই দুই শহরে নামতে চায়নি বিদেশি বিমানটি।

একই সঙ্গে ভারতীয় বায়ুসেনা ইরানের বিমানে বোমাতঙ্কের খবর পেয়ে আকাশে কিছু যুদ্ধবিমান পাঠায়। তারা চিনগামী বিমানটিকে আকাশে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে দীর্ঘ ক্ষণ অনুসরণ করে। অবশেষে বিমানটি চিনের আকাশসীমায় পৌঁছে গেলে ফিরে আসে তারা।

Advertisement

বায়ুসেনা জানিয়েছে, তারা কেন্দ্রের অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের সঙ্গে আলোচনা করে সব রকম পদক্ষেপ করেছে। যত ক্ষণ বিমানটি ভারতের আকাশসীমায় ছিল, তত ক্ষণ পর্যন্ত তার উপর কড়া নজর রাখা হয়েছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.