Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ফুটপাতে ঘুমন্ত তীর্থযাত্রীদের পিষে দিল বাস, ৩ শিশু ও ৪ মহিলার মৃত্যু বুলন্দশহরে

ঘটনাস্থলেই তিন শিশু ও চার মহিলার মৃত্যু হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর। পরে পুলিশ মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

সংবাদ সংস্থা
বুলন্দশহর ১১ অক্টোবর ২০১৯ ০৯:৪৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
বুলন্দশহরে পথ দুর্ঘটনায় সাত জনের মৃত্যু। ছবি: টুইটারের সৌজন্যে

বুলন্দশহরে পথ দুর্ঘটনায় সাত জনের মৃত্যু। ছবি: টুইটারের সৌজন্যে

Popup Close

ফুটপাতে ঘুমন্ত তীর্থযাত্রীদের পিষে দিল একটি বাস। শুক্রবার ভোরে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে একই পরিবারের চার মহিলা ও তিন শিশুর। গঙ্গাস্নান সেরে ফেরার পথে রাস্তার ধারে ঘুমিয়ে ছিলেন তাঁরা। দুর্ঘটনার পর থেকেই পলাতক বাসের চালকের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। মৃতদেহগুলি ময়নাতন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, বুলন্দশহরের নারৌরা ঘাটে গঙ্গাস্নানে গিয়েছিলেন উত্তরপ্রদেশেরই হাথরস এলাকার একটি পরিবার। বৃহস্পতিবার স্নান সেরে গঙ্গাঘাট এলাকায় রাস্তার ধারে রাতে ঘুমিয়েছিলেন তাঁরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী, ভোরের দিকে প্রচণ্ড দ্রুতগতিতে একটি বেসরকারি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতে উঠে পড়ে। ঘুমিয়ে থাকা তীর্থযাত্রীদের পিষে দিয়ে কোনও রকমে ব্রেক কষে দাঁড়িয়ে পড়ে বাসটি। পালিয়ে যায় চালক।

ঘটনাস্থলেই তিন শিশু ও চার মহিলার মৃত্যু হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর। পরে পুলিশ মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। চালকের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে, বৈষ্ণোদেবী থেকে পর্যটকদের নিয়ে ফিরছিল ওই বাসটি। প্রাথমিক তদন্তে তাঁদের অনুমান, ভোরের দিকে চালক ঘুমিয়ে পড়ার জেরেই এত বড় দুর্ঘটনা।

Advertisement

আরও পডু়ন: তাইল্যান্ডে কাজে গিয়ে দুর্ঘটনায় মৃত্যু, ভোপালের তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীর দেহ দেশে ফেরাতে তৎপর প্রশাসন

আরও পড়ুন: আজ আসছেন চিনফিং, ঘরোয়া আলোচনায় কাশ্মীর-অস্বস্তি কাটানোই লক্ষ্য নয়াদিল্লির

মৃতদের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবারই তাঁদের বাড়িতে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই কার্যত গোটা পরিবার শেষ হয়ে গেল। ঘটনার খবর বাড়িতে পৌঁছতেই শোকের ছায়া গোটা এলাকায়।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement