Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Rahul Gandhi

Rahul Gandhi: রাহুলের ভিডিয়ো  কাণ্ডে ‘পলাতক’ তকমা সাংবাদিককে

রোহিত রঞ্জনের অনুষ্ঠানে একটি ভিডিয়ো চালিয়ে দাবি করা হয়, রাহুল উদয়পুরের দর্জি কানহাইয়া লালের খুনিদের ক্ষমা করে দিতে চাইছেন।

রোহিত রঞ্জন।

রোহিত রঞ্জন। — ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৭ জুলাই ২০২২ ০৬:২৬
Share: Save:

রাহুল গান্ধীর ভিডিয়ো বিকৃত করে চালানোয় অভিযুক্ত সাংবাদিক রোহিত রঞ্জনকে পলাতক ঘোষণা করল ছত্তীসগঢ় পুলিশ। অন্য দিকে, ছত্তীসগড় পুলিশের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন রোহিত। তাঁর ও সংশ্লিষ্ট চ্যানেলের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ দাবি করে ‘নিউজ় ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড ডিজিটাল স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি’-র চেয়ারম্যানকে চিঠি লিখেছে কংগ্রেস।

রোহিত রঞ্জনের অনুষ্ঠানে একটি ভিডিয়ো চালিয়ে দাবি করা হয়, রাহুল উদয়পুরের দর্জি কানহাইয়া লালের খুনিদের ক্ষমা করে দিতে চাইছেন। কিন্তু কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়, ওই ভিডিয়োয় আসলে কেরলের ওয়েনাড়ে তাঁর অফিসে যারা ভাঙচুর চালিয়েছে তাদের ক্ষমা করে দেওয়ার কথা বলছেন রাহুল। পরে ক্ষমা চান রোহিত ও চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কংগ্রেস শাসিত ছত্তীসগঢ় ও রাজস্থানে তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে শত্রুতায় উস্কানি দেওয়া-সহ কয়েকটি ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়।

গত কাল ভোরে উত্তরপ্রদেশে গাজ়িয়াবাদের ইন্দিরাপুরমে রোহিতের বাড়িতে তাঁকে গ্রেফতার করতে আসে ছত্তীসগঢ় পুলিশ। রোহিত টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে ট্যাগ করে প্রশ্ন তোলেন, স্থানীয় পুলিশকে না জানিয়ে গ্রেফতার করতে আসা আইনসম্মত কি না। ছত্তীসগঢ় পুলিশ জানায়, আদালতের নির্দেশে পরোয়ানা নিয়েই এসেছে তারা। স্থানীয় পুলিশকে জানানোর প্রয়োজন নেই। কিন্তু উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অপেক্ষাকৃত লঘু অভিযোগে রোহিতকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। দুই রাজ্যের পুলিশের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি হয়। পরে জামিন পান রোহিত।

ছত্তীসগঢ় পুলিশ জানায়, আজ তারা ইন্দিরাপুরমে গিয়ে দেখে রোহিতের বাড়ি তালাবন্ধ। তার পরে তাঁকে ‘পলাতক’ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু এ দিনই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন রোহিত। তাঁর আইনজীবী সিদ্ধার্থ লুথরা জানান, রোহিতের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ গত কালই গ্রেফতার করেছিল। তিনি জামিন পেয়েছেন। তাঁর মক্কেল অনুষ্ঠানের সময়ে একটি ভুল করেছিলেন। এখন আবার ছত্তীসগঢ় পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করতে চায়। বৃহস্পতিবার মামলা শুনতে রাজি হয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তবে প্রথমে যখন লুথরা আর্জির কথা বেঞ্চকে জানান তখনও সেটি নিয়মমাফিক আদালতে পেশ করা হয়নি। তাতে বিচারপতিরা ক্ষুব্ধ হন। ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়েনেন লুথরা।

অন্য দিকে রোহিত ও চ্যানেলের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করার আর্জি জানিয়ে ‘নিউজ় ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড ডিজিটাল স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি’কে চিঠি লিখেছে কংগ্রেস। দলীয় মুখপাত্র পবন খেড়া ওই চিঠিতে জানিয়েছেন, ওই খবরের ক্ষেত্রে কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আইন, কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক বিধি ও সম্প্রচারের নৈতিকতা সংক্রান্ত বিধি ভঙ্গ করা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE