×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

ডোকলামে ফের চিনা সেনার অনুপ্রবেশ

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৫ জানুয়ারি ২০১৯ ০৪:৪৫
 ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

ডোকলামে ভুটানের এলাকায় চিনা সেনাবাহিনীর অনুপ্রবেশ নিয়ে দীর্ঘ সময় ধরে চাপান-উতোর চলেছে দুই পড়শি দেশ ভারত আর চিনের। অভিযোগ, চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)-র সেনারা গত বছর ডোকলামে ভুটানের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকায় অবৈধ ভাবে ঢুকে রাস্তা তৈরির কাজ করছিল। যার প্রতিবাদ করে নয়াদিল্লি। প্রায় ৭৩ দিন ধরে দু’দেশের সেনা বাহিনীর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলার পরে শেষমেশ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হয়। এ বার চিনের সেনার বিরুদ্ধে আবার একই অভিযোগ উঠেছে।

সূত্রের খবর, গত বছরের শেষের দিকে ডোকলামের কাছে চারিতাং উপত্যকায় ফের অনুপ্রবেশ করেছে চিনা বাহিনী। বিষয়টি নিয়ে চিনা সেনার সঙ্গে বৈঠক করেছে ভারতীয় সেনা। কিন্তু এ বারেও দু’দেশের মধ্যে টানাপড়েনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে আশঙ্কা দিল্লির কর্তাদের। পশ্চিম ভুটানের ডোকলাম, চারিতাং, দ্রমনা, সিনচুলুনের মতো এলাকার আধিপত্য নিয়ে চিনের সঙ্গে ভুটানের মতভেদ রয়েছে।

সেই মতভেদ দূর করতে সম্প্রতি বৈঠকে বসেছিল দু’দেশ। আর সেই বৈঠকের ফাঁকেই চিনা সেনা চারিতাংয়ে প্রবেশ করে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

চিনের ইয়াতুং সেনা ঘাঁটি থেকে ডোকলাম পর্যন্ত সংযোগরক্ষাকারী ১২ কিলোমিটারের একটি রাস্তা তৈরি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। সব আবহাওয়ার জন্য সুরক্ষিত ওই রাস্তা তৈরি করছে চিনা সরকার। ভারত সরকারের অভিযোগ, সহজেই ভুটানে অনুপ্রবেশের জন্য ওই রাস্তা তৈরি করছে চিন। কিছু দিন আগেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়তও জানিয়েছেন, ডোকলামে রাস্তা তৈরি করছে ভারতও। তিনি বলেন, ‘‘কয়েক

বছর আগে পর্যন্ত ওখানে রাস্তা তৈরির কথা ভাবেনি ভারত সরকার। কিন্তু চিনা সেনার সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্যই ওখানে ভারতেরও রাস্তা তৈরি জরুরি বলে আমরা মনে করছি।’’

Advertisement