Advertisement
১৮ মে ২০২৪
Karnataka Incident

কন্যাকে হারিয়ে ‘লভ জিহাদ’ তত্ত্ব কংগ্রেস নেতার মুখেও, কর্নাটকে অস্বস্তিতে সরকার

কর্নাটকের কংগ্রেস কাউন্সিলরের কন্যাকে কলেজ ক্যাম্পাসের ভিতরে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে। এই ঘটনায় ‘লভ জিহাদ’-এর অভিযোগ এনেছে বিজেপি। মৃতের বাবার মুখেও সেই তত্ত্ব শোনা গিয়েছে।

(বাঁ দিকে) কংগ্রেস কাউন্সিলর নিরঞ্জন হিরেমথে। তাঁর কন্যা নেহা (ডান দিকে)।

(বাঁ দিকে) কংগ্রেস কাউন্সিলর নিরঞ্জন হিরেমথে। তাঁর কন্যা নেহা (ডান দিকে)। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০২৪ ১৩:০১
Share: Save:

কর্নাটকে কংগ্রেস কাউন্সিলরের কন্যাকে কলেজ ক্যাম্পাসের মধ্যেই কুপিয়ে খুন করা হয়েছে। সেই ঘটনায় এ বার ‘লভ জিহাদ’-এর তত্ত্ব টানলেন খোদ ওই কাউন্সিলরই। তিনি জানালেন, দেশ জুড়ে ‘লভ জিহাদ’ বাড়ছে। মেয়েদের তাই সাবধানে রাখতে হবে। দলের কাউন্সিলরের এই মন্তব্যের পর অস্বস্তিতে পড়েছে কর্নাটকের কংগ্রেস সরকার। কারণ ওই খুনের ঘটনায় ‘লভ জিহাদ’-এর অভিযোগ করেছে বিজেপিও। সেই সুরই শোনা গিয়েছে কন্যাহারা পিতার গলাতেও।

কর্নাটকের হুবলী জেলার কংগ্রেস কাউন্সিলর নিরঞ্জন হিরেমথে। তাঁর কন্যা নেহাকে বিভিবি কলেজের ক্যাম্পাসের মধ্যেই কুপিয়ে খুন করা হয়েছে। অভিযোগ নেহার প্রাক্তন সহপাঠী ফয়াজ়ের বিরুদ্ধে। কলেজের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ফয়াজ় ওই তরুণীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে পর পর ছয় থেকে সাত বার কুপিয়েছেন। তার পর পালিয়ে গিয়েছেন। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাঁকে ধরে ফেলে পুলিশ। এই ঘটনায় প্রথম থেকেই ‘লভ জিহাদ’-এর অভিযোগ করছে বিজেপি। সেই সঙ্গে তাদের দাবি, কংগ্রেস সরকারের আমলে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চূড়ান্ত অবনতি হয়েছে। সেই কারণেই প্রকাশ্যে এমন নৃশংস ঘটনা ঘটেছে।

মৃতের বাবা নিরঞ্জন সংবাদমাধ্যমে এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘আজকাল এই ধরনের নৃশংস খুনের ঘটনা বাড়ছে। আমি জানি না, কম বয়সিরা এমন ভুল পথে কেন যাচ্ছে। কেন ওদের এমন মানসিকতা তৈরি হচ্ছে। আমি চাই গরিব ঘরের কোনও মেয়েকে যেন এই হেনস্থার শিকার হতে না হয়।’’ এর পরেই তিনি বলেন, ‘‘আমার মনে হয় ‘লভ জিহাদ’ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। দেখুন আমি এবং আমার পরিবার কী অবস্থায় এসে পড়লাম। সব মায়ের কাছে আমার আবেদন, মেয়েদের সাবধানে রাখুন। ওদের কলেজে পাঠালে সঙ্গে সঙ্গে আপনিও যান। কেউ ওদের পিছু নিচ্ছে কি না, নজর রাখুন। কারণ আমাদের চার পাশে খুব স্পর্শকাতর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সরকার মহিলাদের জন্য ৫০ শতাংশ সংরক্ষণের ব্যবস্থা করছে। সব ক্ষেত্রেই এখন মহিলারা এগিয়ে গিয়েছেন। কিন্তু এ ভাবে চলতে থাকলে ভাল হবে না। রাজ্য সরকারের কাছে আমার অনুরোধ, এই ঘটনায় উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হোক।’’

কর্নাটক কংগ্রেস আগেই জানিয়েছে, ব্যক্তিগত সম্পর্ক এবং সেই সম্পর্কের অবনতির কারণেই এই হত্যা। ‘লভ জিহাদ’-এর যে অভিযোগ বিজেপি এনেছে, তা কংগ্রেস আগেই উড়িয়ে দিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া বলেছেন, ‘‘ব্যক্তিগত কারণে এই খুন। আমরা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।’’ রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী ডিকে শিবকুমারও জানান রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিকই রয়েছে। ব্যক্তিগত কারণে এই হত্যাকাণ্ড। তার মাঝে খোদ মৃতের বাবার মুখে ‘লভ জিহাদ’ তত্ত্ব কংগ্রেস সরকারকে কিছুটা অস্বস্তিতে ফেলেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Karnataka Murder Case Congress Love Jihad
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE