Advertisement
১৬ জুন ২০২৪
National Herald Case

ন্যাশনাল হেরাল্ড, ধাক্কা কংগ্রেসের

মনমোহন জামানাতেই জহওরলাল নেহরু প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল হেরল্ড পত্রিকা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ করেছিল বিজেপি। ২০১৪ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পরে বিষয়টি নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু হয়।

Representative Image

—প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১২ এপ্রিল ২০২৪ ০৬:০০
Share: Save:

ভোট মরসুমে ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় নতুন করে ধাক্কা খেল কংগ্রেস। ওই মামলায় ৭৫১.৯০ কোটি টাকা সাময়িক ভাবে বাজেয়াপ্ত করার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর সিদ্ধান্ত সঠিক বলে জানাল পিএমএলএ (বেআইনি আর্থিক লেনদেন প্রতিরোধ আইন) আদালত।

এই মামলায় বিভিন্ন সময়ে সনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী ছাড়াও কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়্গে-কে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল ইডি। গত নভেম্বরে পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন চলকালীন প্রায় ৭৫২ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে। ওই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে কংগ্রেস। দু’পক্ষের বিস্তর শুনানির পরে আজ ইডির সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে জানিয়েছে আদালত। ইডি সূত্রে খবর, ন্যাশনাল হেরাল্ড সংবাদপত্র, সেটির প্রকাশনা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড জার্নালস লিমিটেড (এজেএল) এবং মালিক সংস্থা ইয়ং ইন্ডিয়ার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি রয়েছে বাজেয়াপ্ত তালিকায়।

মনমোহন জামানাতেই জহওরলাল নেহরু প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল হেরল্ড পত্রিকা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ করেছিল বিজেপি। ২০১৪ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পরে বিষয়টি নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু হয়। ২০১৫ সালে দিল্লির মেট্রোপলিটন আদালত ইডি-কে নির্দেশ দেয়, ২০০৮ সালে কংগ্রেস যখন সংস্থাটি অধিগ্রহণ করে তখন সেই মালিকানা হস্তান্তরে কোনও বেআইনি লেনদেন হয়েছে কি না খতিয়ে দেখার। সেই মামলার তদন্তে আর্থিক নয়ছয় হয়েছে বলে দাবি করে ৭৫১.৯০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছিল ইডি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE