Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
National News

মন্দির শুরু রামনবমী বা অক্ষয় তৃতীয়ায়

আজ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের মামলা চলছে। বিতর্ক এড়াতেই এ সিদ্ধান্ত। 

ছবি: সংগৃহীত।

ছবি: সংগৃহীত।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৩:২২
Share: Save:

এপ্রিলেই শুরু হতে পারে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ।

Advertisement

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে রাম মন্দির নির্মাণ ও পরিচালনার জন্য ট্রাস্ট গঠনের ঘোষণা সংসদেই করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সঙ্ঘ পরিবারের সূত্রের মতে, মন্দিরের কাজ শুরুর জন্য আপাতত দু’টি দিন ভাবা হয়েছে। প্রথমটি ২ এপ্রিল, রামনবমীর দিন। পরেরটি ২৬ এপ্রিল, অক্ষয় তৃতীয়ার দিন। প্রথম দিনে যদি একান্ত না-হয়, তা হলে দ্বিতীয়টির উপরে জোর দেওয়া হবে। মন্দির নির্মাণের কাজ শুরুর জন্য দু’টোই শুভ দিন।

সঙ্ঘ সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই নতুন ট্রাস্টের বৈঠক শুরু হবে। যদিও এখনও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে ট্রাস্ট্রের সব সদস্যের নামই ঘোষণা হয়নি। আর সরকারের ‘সূত্র’ যা জানিয়েছে, সে তালিকাতেও সব নাম খোলসা করা হয়নি। বর্তমান তালিকায় নেই রাম মন্দির ন্যাসের প্রধান নৃত্যগোপাল দাস ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের চম্পত রাই-এর নামও। তা নিয়ে গেরুয়া শিবিরে অসন্তোষও আছে। সরকার পক্ষের সঙ্গে কথা বলে সঙ্ঘ পরিবার এখন অসন্তোষ দূর করার চেষ্টা করছে। আজ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের মামলা চলছে। বিতর্ক এড়াতেই এ সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুন: জয়পুরে পিটিয়ে খুন কাশ্মীরিকে

Advertisement

সঙ্ঘের এক নেতা বলেন, ‘‘ট্রাস্ট গঠন করে সরকার নিজের দায়িত্ব পূর্ণ করেছে। এ বারে বাকি কাজ ট্রাস্টের। কোন নতুন সদস্যকে ট্রাস্টে নিতে হলে, সেটিও স্থির করবে ট্রাস্ট। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও অন্য সংগঠনের ভূমিকাও তাদেরই স্থির করতে হবে। মন্দিরের জন্য চাঁদা তোলার প্রক্রিয়াতেও পরিষদ জুড়তে পারে। এছাড়া ২৫ মার্চ থেকে শুরু হচ্ছে ‘রামোৎসব’। তার উদ্যোক্তাও পরিষদ।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.