×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

বিহারের মোট করোনা আক্রান্তের এক তৃতীয়াংশ এক পরিবারের সদস্য

সংবাদ সংস্থা
পটনা ১০ এপ্রিল ২০২০ ১৩:৪০
প্রতীকী চিত্র। ছবি: পিটিআই।

প্রতীকী চিত্র। ছবি: পিটিআই।

বিহারে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬০-এর কাছাকাছি, যার প্রায় এক তৃতীয়াংশই একটি মাত্র পরিবারের সদস্য। ওই পরিবারের ২৩ জনের শরীরে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছে। পরিবারের এক সদস্য মার্চের মাঝামাঝি বিদেশ থেকে ফেরেন।

রাজধানী পটনা থেকে প্রায় ১৩০ কিলোমিটার দূরে সিওয়ান জেলার ওই গ্রামে প্রায় ২৫ জনের শরীরের করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। যাঁদের মধ্যে দু’জন বাদে সবাই একটি পরিবারের সদস্য। ওই পরিবারেই এক সদস্য গত ১৬ মার্চ ওমান থেকে ফেরেন। তাঁর কাছ থেকেই পরিবারে বাকি সদ্যদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ওমান থেকে ফেরার পর ওই ব্যক্তির করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়। ৪ এপ্রিল পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। বিদেশ থেকে ফিরে ওই ব্যক্তি সিওয়ান জেলার একাধিক জায়াগায় গিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে। সিওয়ান থেকে এখনও পর্যন্ত ৩১ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে বেল জানিয়েছে প্রশাসন।

Advertisement

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কের মধ্যে লক্ষাধিক টাকার মালপত্র চেটে দিলেন এক মহিলা

ওমান থেকে আসা ওই ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের মধ্যে মহিলা ও শিশুও রয়েছে। তাঁদের সবার মধ্যে প্রথমেই করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা যায়নি। কিন্তু পরে পরীক্ষা করে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে। ওই পরিবারে চারজন ইতিমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন, তাঁদের এখন আলাদা থাকতে বলা হয়েছে। পরিবারের আরও ১০ জনের লালারসের মনুনা নিয়ে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে, এখনও তার ফল আসেনি।

আরও পড়ুন: লকডাউনে উপেক্ষা করে বাইরে বার হওয়া লোকজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছে ড্রোন

বিহার প্রশানস সিওয়ানে ওই গ্রাম ছাড়াও মোট ৪৩টি গ্রাম সিল করে দিয়েছে। সিওয়ান ছাড়াও বেগুসরাই ও নাওয়াদা জেলার সীমানা সিল করে দিয়েছে বিহার প্রশাসন। সেই সঙ্গে রাজ্যজুড়েই মানুষকে বার বার আবেদন করা হচ্ছে তাঁরা যেন ঘর থেকে বের না হন।

বিহারের মুখ্য স্বাস্থ্যসচিব সঞ্জয় কুমার জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার আগেই সিদ্ধান্ত নেয় ১৫ মার্চের পর যাঁরা বিদেশ থেকে ফিরবেন সবারই করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হবে। সময় মতো হস্তক্ষেপে রাজ্যে করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণ এখনও পর্যন্ত আটকানো গিয়েছে বলে মত বিভিন্ন মহলের।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

Advertisement