• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লকডাউনে উপেক্ষা করে বাইরে বার হওয়া লোকজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছে ড্রোন

Kerala police
ড্রোন উড়িয়ে নজরদারি। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

লকাডাউনেও কিছু মানুষ নিয়মের তোয়াক্কা না করেই ঘরেই বাইরে বার হচ্ছেন। তাঁদের উপর ড্রোন দিয়ে নজর রাখছে কেরল পুলিশ। আর ড্রোনের ক্যামেরায় ধরা পড়া সেই সব ফুটেজ নিয়ে ভিডিয়ো পোস্ট হয়েছে কেরল পুলিশের টুইটার হ্যান্ডলে। তাতে আবার ব্যাকগ্রাউন্ডে ক্রিকেট ধারাভাষ্য ব্যবহার করা হয়েছে।

কেরল পুলিশের ভেরিফায়েড টুইটার হ্যান্ডলে মঙ্গলবার ভিডিয়োটি পোস্ট হয়েছে। দেখা যাচ্ছে, একটি ড্রোন উড়িয়ে দিচ্ছেন কয়েকজন পুলিশকর্মী। সেই ড্রোন পৌঁছে যায় একটি নারকেল বাগানের মাথায়। ওপর থেকে দেখা যায় সেখানে বেশ কয়েক জন লোক ঘুরে বেড়াচ্ছেন। যেই তাঁরা ড্রোন দেখতে পেয়েছেন ছুটে পালাচ্ছেন বা লুকিয়ে পড়ার চেষ্টা করছেন। এই একই দৃশ্য দেখা গিয়েছে সৈকত, খামার বা লোকালয়েও।

এক মিনিট ২৩ সেকেন্ডের এই ভিডিয়োতে শোনা যাচ্ছে ক্রিকেট ম্যাচের ধারাভাষ্য। সেখানে রবি শাস্ত্রী, সুনীল গাওস্কর, সঞ্জয় মঞ্জেরেকর, কপিল দেব ও লক্ষ্মণ শিবরামকৃষ্ণণের গলা রয়েছে। এই ধারাভাষ্যে রবি শাস্ত্রীর ব্যবহার করা ‘ট্রেসার বুলেট’ (লক্ষ্য খুঁজে বের করা গুলি) শব্দ শোনা যাচ্ছে। যা তাঁর হাত ধরে ২০১৬ সালে জনপ্রিয় হয়েছিল, ভাইরাল হয় ‘#ট্রেসার বুলেট চ্যালেঞ্জ’-ও। এখানেও সম্ভবত নিষেধাজ্ঞা ভেঙে বাড়ির বাইরে বার হওয়া লোকজনকে ড্রোন দিয়ে খুঁজে বের করাকে বোঝাতে চেয়েছে কেরল পুলিশ।

আরও পড়ুন: ১০ বছরের চেষ্টা সফল হয়নি, করোনার সুযোগে মিলন দুই পান্ডার

কেরল পুলিশের ভিডিয়োটি ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এখনই সেটি প্রায় এক লাখ ৫৮ হাজার বার দেখা হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রচুর নেটাগরিক মজার মন্তব্য করেছেন পোস্টটিতে। ভিডিয়োতে এক ব্যক্তিকে ড্রোনের নজর থেকে বাঁচতে একটি নারকেল গাছের আড়ালে লুকাতে দেখা যায়। সেই দৃশ্যটির কথাও উল্লেখ করেছেন এক ইউজার। কেরল পুলিশ ও তাদের তৈরি এমন একটি ভিডিয়োর প্রশংসাই দেখা গিয়েছে বেশিরভাগ মন্তব্যে।

আরও পড়ুন: করোনার জেরে ঘরবন্দি, ‘প্রতিবেশী’ কাঠবিড়ালির জন্য বানিয়ে দিলেন পিকনিক টেবিল

দেখুন সেই ভিডিয়ো:

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানা ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের সঙ্গে। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা, তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি প্রকাশযোগ্য বলে বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন