Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ঘরমুখী পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সঙ্ঘর্ষ সুরতে

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন কাদোদরা এলাকায় শত শত শ্রমিক রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

সংবাদ সংস্থা
সুরত ০৪ মে ২০২০ ১৭:০২
Save
Something isn't right! Please refresh.
শ্রমিকদের বিক্ষোভে কাঁদানে গ্যাস পুলিশের। ছবি: টুইটার

শ্রমিকদের বিক্ষোভে কাঁদানে গ্যাস পুলিশের। ছবি: টুইটার

Popup Close

বাড়ি ফেরার দাবিতে ফের শ্রমিকদের বিক্ষোভ গুজরাতের সুরতে। সোমবার কার্যত ধুন্ধুমার বেধে যায় সুরতের কাদোদরা এলাকায়। পুলিশের সঙ্গে এক দল পরিযায়ী শ্রমিকের সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন কাদোদরা এলাকায় শত শত শ্রমিক রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। নিজের রাজ্যে ফেরার দাবি তোলেন তাঁরা। ক্রমশই বাড়তে থাকে ভিড়। শ্রমিকদের জমায়েত করতে নিষেধ করে পুলিশ। আর তাতে দু’পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। পুলিশকে লক্ষ্য করে বিক্ষোভকারীরা পাথর ছোড়ে বলে অভিযোগ। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এর পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে বলে জানিয়েছেন সুরতের এক পুলিশ আধিকারিক। সুরতের পালানপুর পাটিয়া নামে অন্য একটি এলাকায় বিক্ষোভ দেখায় পরিযায়ী শ্রমিকদের আর একটি দল।

Advertisement

সারা দেশে সুরত কার্যত পরিযায়ী শ্রমিকদের হাব। বিভিন্ন রাজ্য থেকেই বহু মানুষ এখানে হিরে ও বস্ত্র শিল্পে কাজ করতে যান। লকডাউনের জেরে তাঁদের অধিকাংশই এখন আটকে পড়েছেন। গত তিন দিনে ১৮টি ট্রেনে প্রায় ২১ হাজার শ্রমিক সুরত ও আমদাবাদ থেকে ওড়িশা, বিহার, উত্তরপ্রদেশ-সহ বিভিন্ন রাজ্যে রওনা দিয়েছেন। বাড়ি ফেরার দাবিতে এর আগেও পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সুরত।

আরও পড়ুন: দুর্বল নজরদারি, টেস্ট কম, মৃত্যুর হার সর্বোচ্চ, রাজ্যকে চিঠি কেন্দ্রীয় দলের​

আরও পড়ুন: সকালে বন্ধ হলেও পুলিশি পাহারায় বিকেলেই ফের খুলল মদের দোকান​

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement