Advertisement
২১ জুলাই ২০২৪
Professor

ছুটি মঞ্জুর করাতে উপরাজ্যপালের নাম ভাঁড়িয়ে উপাচার্যকে ফোন! দিল্লিতে ধৃত অধ্যাপক

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত অধ্যাপকের নাম রোহিত সিংহ। দিল্লি বিমানবন্দর থেকে তাঁকে বুধবার গ্রেফতার করা হয়। অধ্যাপক ব্রিটেনে গিয়েছিলেন।

Professor Arrested

দিল্লি বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার অধ্যাপক। প্রতীকী ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৮ মে ২০২৩ ১৬:৩৫
Share: Save:

ছুটি মঞ্জুর করাতে দিল্লির উপরাজ্যপাল ভি কে সাক্সেনার নাম ভাঁড়িয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে ফোন করে গ্রেফতার হলেন গুরু গোবিন্দ সিংহ ইন্দ্রপ্রস্থ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সহকারী অধ্যাপক।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত অধ্যাপকের নাম রোহিত সিংহ। দিল্লি বিমানবন্দর থেকে তাঁকে বুধবার গ্রেফতার করা হয়। অধ্যাপক ব্রিটেনে গিয়েছিলেন। বুধবার দিল্লি বিমানবন্দরে নামতেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই।

ছুটি পাচ্ছিলেন না ওই অধ্যাপক। পুলিশ জানিয়েছে, এক বার নয় দু’বার উপরাজ্যপালের নাম ভাঁড়িয়ে ছুটি মঞ্জুর করিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অধ্যাপকের বিরুদ্ধে। প্রথম ঘটনাটি ঘটেছিল ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে। উপাচার্যকে ল্যান্ডলাইনে ফোন করেছিলেন অধ্যাপক। তিনি ফোন ধরতেই অধ্যাপক নিজেকে উপরাজ্যপাল হিসাবে পরিচয় দিয়েছিলেন। তার পরই ছুটি মঞ্জুর করার কথা বলেন উপাচার্যকে। ‘উপরাজ্যপালের’ কাছ থেকে ফোন পেয়ে উপাচার্য সঙ্গে সঙ্গে ওই অধ্যাপকের ছুটি মঞ্জুর করেন।

প্রথম বার কোনও রকম অসুবিধা না হলেও পরের বার কিন্তু বিষয়টি আর গোপন থাকেনি। পুলিশ জানিয়েছে, প্রথম বার সহজেই সুযোগ পেয়ে যাওয়ায়, দ্বিতীয় বারও উপরাজ্যপালের নাম ভাঁড়িয়ে সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করেন অধ্যাপক রোহিত। পুলিশ জানিয়েছে, এ বার নিজের বোন মানবী সিংহকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরাজি বিভাগে চাকরি করিয়ে দেওয়ার জন্য আবার উপরাজ্যপালের নাম ভাঁড়িয়ে উপাচার্যকে ফোন করেন। তখনই সন্দেহ হয় উপাচার্যের। তিনি তখন উপরাজ্যপালের দফতরে ফোন করে বিষয়টি যাচাই করার চেষ্টা করেন। যে নম্বর থেকে ফোন করা হয়েছিল সেটি ছিল ব্রিটেনের। উপরাজ্যপালের দফতর থেকে জানানো হয়, এই নম্বরটি অচেনা। দফতর থেকে কোনও ফোন করা হয়নি। এর পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন উপাচার্য। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, যে নম্বর থেকে উপাচার্যকে ফোন করা হয়েছিল সেটি ব্রিটেনের। সেই নম্বর চিহ্নিত করে অধ্যাপকের খোঁজ পায় পুলিশ। তার পরই তাঁর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করা হয়। রোহিতের বাবা এবং বোনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Professor cheating delhi university
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE