Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ইভিএম নিয়ে তোপ এ বার শিবসেনার

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ৩১ মে ২০১৮ ০৪:০৫

ভোটযন্ত্রে কারচুপির অভিযোগ নিয়ে ক্রমেই তপ্ত হচ্ছে রাজনীতির চাপান-উতোর। বিরোধী দলগুলি আগে থেকেই সরব এ নিয়ে। এনডিএ শরিক শিবসেনাও এ বার কাঠগড়ায় তুলল বিজেপি, কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে। দলীয় মুখপাত্র সামনায় উদ্ধব ঠাকরেদের দাবি, সাম্প্রতিক উপনির্বাচনগুলিতে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে ইভিএম কেলেঙ্কারি। আবার ব্যালটের ভোট ফিরিয়ে আনা হোক। যদিও আজও নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, ইভিএম বাতিল করার কোনও প্রশ্নই নেই। গরমের কারণে কিছু ইভিএম খারাপ হয়েছিল।

মহারাষ্ট্রে পালগড়ের উপনির্বাচনে বিজেপি-শিবসেনা আলাদা লড়েছে। এখানে ইভিএম কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গে সামনার সম্পাদকীয়তে বিজেপির ‘স্বৈরচারী মনোভাব’কে আক্রমণ করে বলা হয়েছে, ‘‘শাসক শিবির যে পথে এগোচ্ছে তাতে গণতন্ত্রের উপর থেকে মানুষের আস্থা চলে যাওয়ার পথে। ভোটে জিততে শাসকেরা গণতন্ত্র, নির্বাচন ও নির্বাচন কমিশনকে নিজেদের রক্ষিতা বানিয়ে ফেলেছে।’’ নির্বাচন কমিশনকে নিশানা করে শিবসেনার বক্তব্য, কমিশন শাসক শিবিরের দাসে পরিণত হয়েছে। শাসকদের ভয়ে তারা এখন ভোটারদের মদ ও নগদ টাকা বিলির মতো অভিযোগ নিতেও ভয় পাচ্ছে।

উত্তরপ্রদেশে ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ নিয়ে মায়াবতী, অখিলেশ যাদবরা সরব হয়েছিলেন বিধানসভা নির্বাচনের পরেই। কৈরানা ও ফুলপুরের উপনির্বাচনেও উঠে এসেছে একই অভিযোগ। ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপিএটি যন্ত্র থাকলে কে কাকে ভোট দিলেন তার প্রমাণ থাকে কাগজে। গত সোমবার কৈরানায় ১০ হাজার ৩০০টি ভিভিপিএটি যন্ত্র ব্যবহার করা হয়েছিল। কিন্তু তার প্রায় ১০ শতাংশই ঠিকমতো কাজ করেনি। বিকল ছিল বেশ কিছু ইভিএমও। যার জেরে কৈরানার ৭৩টি বুথে আজ ফের ভোট নেওয়া হল। সোমবার কৈরানায় বহু বুথে ভোট ঠিকমতো না হওয়ায়, আরএলডির পাশাপাশি বিজেপিও অবশ্য খারাপ ইভিএম ব্যবহারের জন্য কমিশনের দিকে আঙুল তুলেছে।

Advertisement

মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ও পি রাওয়তের বক্তব্য, ‘‘ইভিএমে নয়, সমস্যা হয়েছে ভিভিপিএটি-তে। এগুলি নতুন এবং এই ভোটেই প্রথম এগুলি ব্যবহার করা হল। কিন্তু সরাসরি আলো পড়লে এগুলিতে কিছু সমস্যা হয়।’’ কমিশন আবার এ-ও বলছে যে, বাতাসের আর্দ্রতা ও গরমে কিছু ইভিএমের চিপ খারাপ হয়েছিল। কমিশনের এই যুক্তিকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েনি সামনা। মরাঠি দৈনিকে বলা হয়েছে, ‘‘গরমে প্রধানমন্ত্রীর বিমানের ইঞ্জিন বা বিজেপির সোশ্যাল মিডিয়া সেন্টারের কম্পিউটার তো খারাপ হয় না!’’

কৈরানায় যে ৭৩টি বুথে আজ ভোট পড়েছে গড়ে ৬১%। মোটামুটি নির্বিঘ্নই ছিল ভোটগ্রহণ। ইভিএম বিকল হয়ে একটি বুথে কিছুক্ষণ ভোট বন্ধ থাকে। পোলিং অফিসারের কাছে ফোন পাওয়া যায় একটি বুথে। সিরসিলা গ্রামে ভোটকর্তারা ৩৫৬-র বদলে ৩৫৫ নম্বর বুথে ভোট হবে বলে জানানোয় তা নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়।

আরও পড়ুন

Advertisement