Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

পুলিশকে মার, ট্র্যাক্টর চাপা দিয়ে মারার চেষ্টা, কৃষক বিক্ষোভে রণক্ষেত্র দিল্লির আইটিও চত্বর

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:৪০
এ ভাবেই বেপরোয়া ট্র্যাক্টর চালিয়ে দেন এক কৃষক। দিল্লির আইটিও চত্বরে, মঙ্গলবার।

এ ভাবেই বেপরোয়া ট্র্যাক্টর চালিয়ে দেন এক কৃষক। দিল্লির আইটিও চত্বরে, মঙ্গলবার।
ছবি: পিটিআই

কৃষকদের ট্র্যাক্টর প্যারেড ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল দিল্লির আইটিও (আয়কর ভবন) চত্বর। লাঠিচার্জ করে, কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে কৃষকদের নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে পুলিশ। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে কৃষকদের। আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। ভাঙচুর চালানো হয়েছে একাধিক বাসে।

ট্র্যাক্টর প্যারেডের জন্য নির্দিষ্ট রুটে অনুমতি দিয়েছিল দিল্লি পুলিশ। ওই সব রুটে ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তার পাশাপাশি ব্যারিকেড তৈরি করে রেখেছিল পুলিশ। কিন্তু প্রতিবাদী কৃষকদের একটি দল সেই রুট এড়িয়ে পৌঁছে যায় আইটিও চত্বরে। সেখানে পৌঁছতেই তাঁদের বাধা দেওয়া হয়, তাতেই শুরু হয় কৃষক-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ। হাতাহাতি, সংঘর্ষে গোটা এলাকায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ বাধ্য হয়ে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায়। মৃদু লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে আন্দোলনকারীদের। কিন্তু তার পরেও দীর্ঘক্ষণ আইটিও চত্বরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কৃষকরা। দুপুরের দিকে ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণে আসে পরিস্থিতি।

Advertisement

এই সময়ই দেখা যায়, বেপরোয়া ভাবে ট্র্যাক্টর চালিয়ে পুলিশকর্মীদের চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছেন দুই কৃষক। পুলিশকর্মীরাও উদভ্রান্তের মতো দৌড়ে প্রাণরক্ষার চেষ্টা করেন। যদিও তাতে কেউ হতাহত হননি।


বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীকে মারধরের অভিযোগও উঠেছে কৃষকদের বিরুদ্ধে। কিছু পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। এই চত্বরে রাস্তার উপর বাস দাঁড় করিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করেছিল দিল্লি পুলিশ। সেই বাসগুলির কয়েকটিতে ভাঙচুর চালান কৃষকরা।

এই হুলস্থুল পরিস্থিতির মধ্যে এক পুলিশকর্মীকে উদ্ধার করছেন কৃষকরা, এমন ছবিও ধরা পড়েছে। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, ওই পুলিশকর্মীকে এনে তাঁর সহকর্মীদের হাতে তুলে দিচ্ছেন কৃষকরা।

আরও পড়ুন

Advertisement