Advertisement
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
police

Murder: দলিত সহকর্মীকে শ্বাসরোধ করে খুনের পর সিলিং ফ্যানে ঝুলিয়ে দিলেন কনস্টেবল!

আশিস এবং রোহিত দু’জনেই মেরঠের বাসিন্দা। কর্মসূত্রে তাঁরা মথুরাতে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে একসঙ্গে থাকতেন।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
লখনউ শেষ আপডেট: ০৩ জুলাই ২০২২ ১৩:০৪
Share: Save:

দলিত সহকর্মীকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধরের পর দড়ি দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠল এক কনস্টেবলের বিরুদ্ধে। শুধু তাই-ই নয়, ঘটনাটি যাতে আত্মহত্যা মনে হয় তা প্রমাণ করতে সিলিং ফ্যানে দড়ি দিয়ে ওই পুলিশকর্মীকে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের মথুরার।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম আশিস কুমার। তিনি যে ভাড়াবাড়িতে থাকতেন সেই ঘর থেকে আশিসের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আশিসকে খুন করার অভিযোগ তাঁর সহকর্মী রোহিত ধাঙ্গারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আশিস এবং রোহিত দু’জনেই মেরঠের বাসিন্দা। কর্মসূত্রে তাঁরা মথুরাতে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে একসঙ্গে থাকতেন। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে যে, কোনও একটি বিষয়ে কথা কাটাকাটি হয় দু’জনের মধ্যে। অভিযোগ, এর পরই রোহিত ক্ষিপ্ত হয়ে আশিসকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করেন। তার পর একটি দড়ি দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করেন আশিসকে। তার পর ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলে প্রমাণ করতে আশিসের দেহ দড়ি দিয়ে ফ্যানে ঝুলিয়ে দেন।

রোহিতের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (খুন) এবং ২০১ (প্রমাণ লোপাট) ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। আশিসের বাবার অভিযোগ, কয়েক দিন আগেই তাঁর ছেলে দাদাকে জানিয়েছিল যে, রোহিত তাঁর সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। জাতপাত তুলে গালিগালাজ করে। এমনকি খুনেরও হুমকি দিতেন। তাঁর অভিযোগ, দলিত বলেই আশিসকে খুন করেছেন রোহিত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.