×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

‘আমিষাশী’ হয়ে যাচ্ছে গরু, ‘শুদ্ধিকরণ’-এ নামল গোয়া সরকার

সংবাদ সংস্থা
পানজিম ২০ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:৪১
গোশালায় চিকিৎসা চলছে গরুগুলির।—প্রতীকী ছবি।

গোশালায় চিকিৎসা চলছে গরুগুলির।—প্রতীকী ছবি।

পেটের জ্বালায় যা ইচ্ছা খেয়ে বেড়িয়েছে। বাদ যায়নি মাছ-মাংসও। তাই এ বার সমস্ত বেওয়ারিশ গরু-মোষ ধরে এনে ‘শুদ্ধিকরণ’ শুরু করল গোয়াবিজেপি সরকার। তার জন্য ডেকে আনা হয়েছে পশু চিকিৎসককেও। তাঁর তত্ত্বাবধানেই ওই সমস্ত গরুদের নিরামিষাশী করে তোলার চিকিৎসা শুরু হয়েছে।

শনিবার গোয়ার আরপোরা গ্রামে একটি অনুষ্ঠান চলাকালীন নিজেই এ কথা জানান রাজ্যের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা (ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট)মন্ত্রী মাইকেল লোবো। তিনি জানান, ‘‘কলঙ্গুট থেকে ৭৬ বেওয়ারিশ গরু উদ্ধার করে গোশালায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে তাদের দেখভাল করা হচ্ছে। পশু বিশেষজ্ঞের তদারকিতে রয়েছে তারা। সকলকে ওষুধ দেওয়া হচ্ছে।’’

মাইকেল লোবোর দাবি, ‘‘আগে নিরামিষাশী ছিল গরুগুলি। মাছ-মাংসের গন্ধ পেলেই সরে যেত। কিন্তু রেস্তরাঁর উচ্ছিষ্ট মাংস, পচা মাছ খেয়ে তারা এখন আমিষাশী হয়ে গিয়েছে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: অপারেশন নীলম ভ্যালি: উপরাষ্ট্রদূতকে তলব পাকিস্তানের, নজর রাখছেন রাজনাথ​

আরও পড়ুন: ভারতীয় সেনার বড় প্রত্যাঘাত, অধিকৃত কাশ্মীরে বেশ কয়েকটি জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস, হতাহত অনেক​

রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো ওই গরুগুলির জন্য দুর্ঘটনা ক্রমশ বেড়ে চলেছিল। সে খবর কানে পৌঁছতেই গরু ধরপাকড় শুরু হয়। গোশালায় তাদের চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছেন লোবো।

Advertisement