×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বিহুর আগেই বকেয়া

নিজস্ব সংবাদদাতা
গুয়াহাটি১৯ মার্চ ২০১৭ ০৩:২৫

সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশের চেয়েও এক ধাপ এগিয়ে রাজ্য মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ২০১৬ সালের ১ এপ্রিল থেকে নতুন হারের বকেয়া বেতন পাবেন সরকারি কর্মীরা। প্রথম দফার বকেয়া বিহুর আগেই দিয়ে দেওয়া হবে। এ কথা ঘোষণা করে অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা জানান, নতুন চাকরি পাওয়া সরকারি কর্মীদের তিন বছরের ‘প্রোবেশন’ পর্বে ৫০ শতাংশ বেতন পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মন্ত্রিসভা এই পর্বেও ১০০ শতাংশ বেতন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত কাল মন্ত্রিসভার বৈঠকের সিদ্ধান্ত নিয়ে আজ সাংবাদিক সম্মেলন করে হিমন্ত বলেন, বেতন কমিশনের সব সুপারিশ মেনে নিলে বকেয়া ও বর্ধিত বেতন বাবদ রাজ্যের ৩০৮৭ কোটি টাকা অতিরিক্ত খরচ হবে। তাই বকেয়া টাকা দু’ভাগে দেওয়া হবে। দ্বিতীয় পর্বের টাকা দুর্গাপুজোর আগে বা বছর শেষে দেওয়া হতে পারে। সেই সঙ্গে প্রতি বছর ন্যূনতম তিন শতাংশ স্থায়ী বেতন বৃদ্ধি, কেন্দ্রের হার মেনে ডিএ বৃদ্ধি মিলিয়ে ৩১০০ কোটি টাকা লাগবে। পরের বছর তাই মোট খরচ হবে প্রায় ৬৪০০ কোটি টাকা।

জেলা ও রাজাধানীতে তৃতীয় শ্রেণির কর্মীর বেতন কাঠামো ভিন্ন হওয়ায় তাঁদের বদলি হয় না। হিমন্ত জানান, এ বার থেকে কেন্দ্রীয় ভাবে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মী নিয়োগ হবে। একই বেতন কাঠামো হবে। ফলে চাকরি হবে বদলিযোগ্য। হিমন্ত জানান, ‘‘আজ থেকেই অনলাইনে নতুন বেতন কাঠামো দেখা যাবে। অভিযোগ মেটাতে তৈরি হবে ‘অ্যানম্যালি কমিটি’। বেতন কাঠামো বা হিসেবে ভুল থাকলে সেখানে অভিযোগ দায়ের করতে পারবেন সরকারি কর্মীরা।

Advertisement
Advertisement