×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ মে ২০২১ ই-পেপার

প্রয়োজনে সেনা অভিযানে নামব, লাদাখের পরিস্থিতি নিয়ে চিনকে হুঁশিয়ারি রাওয়তের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৪ অগস্ট ২০২০ ১২:৫৪
চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়ত। ফাইল চিত্র।

চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়ত। ফাইল চিত্র।

লাদাখে চিনা আগ্রাসন ঠেকাতে প্রয়োজনে সেনা অভিযান চালানো হবে। সেনাকে তার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। রবিবার এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) বিপিন রাওয়ত

এক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাওয়ত বলেন, “শান্তিপূর্ণ ভাবে বিষয়টা মিটিয়ে নেওয়া চেষ্টা করছে ভারত। তবে দু’দেশের মধ্যে যদি সেনা এবং কূটনৈতিক পর্যায়ের আলোচনা ব্যর্থ হয়, তা হলে সেনা অভিযানকেই বিকল্প পথ হিসেবে বেছে নেব আমরা।” লাদাখের পরিস্থিতি নিয়ে কী কী পদক্ষেপ করা যায় সমগ্র বিষয়টি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল পর্যালোচনা করছেন বলেও জানান রাওয়ত।

গালওয়ান থেকে শুরু হয়েছে সমস্যা। তার পরে কয়েক মাস কেটে গেলেও পূর্ব লাদাখে সীমান্ত সমস্যার এখনও সমাধান হয়নি। গত দেড় মাস ধরে ভারত-চিনের মধ্যে সেনা এবং কূটনৈতিক পর্যায়ের একাধিক বৈঠকেও কোনও সুরাহা মেলেনি। তার পরেও লাদাখের প্যাংগং, দেপসাং-সহ বিভিন্ন প্রান্তে লাল ফৌজ ঢুকে পড়ার চেষ্টা করেছে। গত বৃহস্পতিবারেও এক দফায় বৈঠক হয়েছে। সূত্রের খবর, সেই বৈঠক থেকেও কোনও আশাপ্রদ ফল মেলেনি।

এক সরকারি সূত্র বলছে, চিনা সেনারা পূর্ব লাদাখে সীমান্তের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছে না। যদি সীমান্ত সংক্রান্ত কোনও প্রোটোকল চিন অমান্য করে তা হলে ভারতীয় সেনার কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে তাদের। অন্য দিকে, সেনা জানিয়েছে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি যে ভাবে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করছে তা কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।

আরও পড়ুন: সংক্রমণ হার ফের ১০ শতাংশের বেশি, মোট আক্রান্ত ৩১ লক্ষ ছাড়াল

Advertisement
Advertisement