Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অপেক্ষার অবসান! ভারতের মাটিতে পা রাখলেন মুক্ত অভিনন্দন

শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ পাক সেনাদের একটি কনভয়ে ওয়াঘা সীমান্তে নিয়ে আসা হয় অভিনন্দনকে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০১ মার্চ ২০১৯ ২২:২৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
দেশের মাটিতে উইং কমান্ডার অভিনন্দন। ছবি: পিটিআই।

দেশের মাটিতে উইং কমান্ডার অভিনন্দন। ছবি: পিটিআই।

Popup Close

দেশের মাটিতে পা রাখলেন উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। তাঁকে স্বাগত জানালেন এয়ার ভাইস মার্শাল আর জি কে কপূর। শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ পাক সেনাদের একটি কনভয়ে ওয়াঘা সীমান্তে নিয়ে আসা হয় অভিনন্দনকে। সেখানে তাঁর একপ্রস্ত মেডিক্যাল চেকআপ হয়। পাক রেঞ্জার্স-এর ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’-এর পরই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয় অভিনন্দনকে।

এ দিন সকাল থেকেই একটা টানটান উত্তেজনা ছিল ওয়াঘা-অটারী সীমান্তে। অভিনন্দনকে ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে ফেরানো হবে, খবরটা চাউর হতেই ভোর থেকে কয়েকশো মানুষ সেখানে হাজির হন।কিন্তু কখন ফেরানো হবে তা নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল। সেই জল্পনার মধ্যেই নানা সূত্র মারফত্ খবর আসতে থাকে, দুপুর ২টো নাগাদভারতের হাতেঅভিনন্দনকে তুলে দেবে পাকিস্তান। অধীর আগ্রহে সকলেই অপেক্ষা করতে থাকেন কখন সেই মাহেন্দ্রক্ষণ হাজির হবে, কখন দেশের মাটিতে পা রাখবেন অভিনন্দন। অবশেষে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ এসে হাজির হয়। ঘড়ির কাঁটায় ভারতীয় সময় তখন রাত ৯.২০।

দেশের মাটিতে পা রাখার পরই অভিনন্দনকে অমৃতসর এয়ারবেসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেও এক প্রস্থ তাঁর মেডিক্যাল চেকআপ হয়। এ দিন সকালে পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশন অভিনন্দনের মুক্তির ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কাজকর্মগুলো সেরে ফেলে। এবং সেই কাগজপত্র পাকিস্তানের হাতে তুলে দেয়। তার পরই ইসলামাবাদ থেকে সড়ক পথে লাহৌরে নিয়ে আসা হয় তাঁকে।

Advertisement


আরও পড়ুন: মৃত সেজে শুয়ে থাকা জঙ্গির গুলিতে কাশ্মীরে নিহত চার জওয়ান-সহ পাঁচ

অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে বিকেলেই হাজির হন সেনা ও এয়ারফোর্সের শীর্ষ আধিকারিকরা। ছেলেকে নিতে সকালেই সীমান্তে পৌঁছে গিয়েছিলেন অভিনন্দনের বাবা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান।অভিনন্দনকে অভিনন্দন জানাতে সকাল থেকে ওয়াঘা-অটারী সীমান্তে হাজির হন কয়েকশো মানুষ। ‘ভারত মাতা কি জয়’, ‘বন্দে মাতরম’ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে সীমান্ত এলাকা। সকলেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করতে থাকেন কখন ফিরবে ঘরের ছেলে!

আরও পড়ুন: দেশে ফিরে কোন কোন পরীক্ষার সম্মুখীন হতে পারেন অভিনন্দন

এ দিকে, উইং কম্যান্ডারের প্রত্যর্পণ এবং নিরাপত্তার বিষেয়টি বিবেচনা করে ওয়াঘা সীমান্তে আজকের জন্য ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’ বাতিল করে বিএসএফ। চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়সীমান্তে।সূত্রের খবর, অভিনন্দনকে ভারতে ফেরত পাঠানো হোক বিশেষ বিমানে—ইসলামাবাদের কাছে এমনইনাকি অনুরোধ জানিয়েছিল দিল্লি। কিন্তু ইসলামাবাদ সেই অনুরোধ নস্যাত্ করে দিয়ে দিল্লিকে জানিয়ে দেয়, ওয়াঘা-অটারী সীমান্ত দিয়েই নিয়ে আসা হবে অভিনন্দনকে। তার পর তুলে দেওয়া হবে তাদের হাতে।

ঘোষণাটা বৃহস্পতিবারেই হয়ে গিয়েছিল ভারতীয় বাসুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দেবে পাকিস্তান। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তাঁর বক্তব্যে ‘পিস জেসচার’ শব্দ দুটো ব্যবহার করার পর পরই বলেন, শুক্রবার মুক্তি দেওয়া হবে অভিনন্দনকে। কোথায়, কখন তাঁকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে তা নিয়ে একটা জল্পনা ছিল। অবশেষে সেই জল্পনার অবসান হয় এ দিন সকালেই। সেনা সূত্রে জানা যায়, অভিনন্দনকে ওয়াঘা-অটারী সীমান্তে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement