Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
IT Sector

তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে এ বছর বিপুল নিয়োগ, বাড়বে বেতন-বোনাসও, বলছে সমীক্ষা

রিপোর্টে বলা হয়েছে, অন্তত ৬০ শতাংশ কর্মী আশা করছেন, তাঁদের বেতন বাড়বে এ বছর।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ২০:২৫
Share: Save:

করোনার ধাক্কায় গত বছর তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে নিয়োগ কমেছিল ব্যাপক হারে। সেই ধাক্কা কাটিয়ে এ বছর ফের বিপুল সংখ্যক নিয়োগের পরিকল্পনা করছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্র। একটি রিপোর্ট অনুযায়ী ৫৩ শতাংশ তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা গত বছরের তুলনায় নিয়োগ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাশাপাশি অন্তত ৪৩ শতাংশ সংস্থা কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির পরিকল্পনাও করছে বলে ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে।

এখন অধিকাংশ দেশেই করোনার সংক্রমণ কার্যত নিয়ন্ত্রণে। টিকা দেওয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে। আর তাতেই আবার ঘুরে দাঁড়িয়ে ছন্দে ফিরেছে। তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে নতুন কর্মসংস্থান, কাজের পরিবেশ, কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি-সহ নানাবিধ বিষয়ে সমীক্ষা চালিয়েছে পেশাদার কর্মসংস্থান ভিত্তিক সংস্থা মাইকেল পেজ। বিভিন্ন সংস্থার নীতি নির্ধারণকারী এবং কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে তৈরি ‘ট্যালেন্ট ট্রেন্ডস’ নামে ওই সমীক্ষার রিপোর্টেই বলা হয়েছে, দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে ৫৩ শতাংশ সংস্থা গত বছরের চেয়ে এই বছর অনেক বেশি নিয়োগের পরিকল্পনা নিয়েছে।

ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, অন্তত ৬০ শতাংশ কর্মী আশা করছেন, তাঁদের বেতন বাড়বে এ বছর। মালিকপক্ষের দিক থেকেও আশ্বাস মিলেছে ৫৫ শতাংশ সংস্থা কর্মীদের বেতন বাড়াবে। এই সব সংস্থার কর্মীরা বেতন বৃদ্ধির পাশাপাশি বোনাসও পাবেন। ৪৩ শতাংশ সংস্থা আবার কর্মীদের এক মাসের বেতনের সমপরিমাণ বোনাস দেওয়ার সিদ্ধান্তও নিয়েছে বলে উঠে এসেছে ওই সমীক্ষায়।

তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে চারটি বড় সংস্থা বা তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রের বিগ-৪ টিসিএস, ইনফোসিস, এইচসিএল টেকনোলজিস এবং উইপ্রো যৌথ ভাবে অন্তত ৯১ হাজার কর্মী নিয়োগ করবে বলে ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে। এ ছাড়া দেশের ৭৪ শতাংশ সংস্থার আশ্বাস, গত বছরের তুলনায় ১৪ শতাংশ বেশি কর্মী নিয়োগ করবে।

করোনা ও লকডাউনের সময় থেকে ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’-এর চাহিদা বিপুল হারে বেড়েছে। সেই চাহিদা মেটাতে প্রায় প্রতিদিন নিত্যনতুন প্রযুক্তি আবিষ্কার হচ্ছে বা তার আপগ্রেডেশন হচ্ছে। যোগ হচ্ছে নতুন নতুন ফিচার। আবার করোনার প্রকোপের আগে থেকেই তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে অধিকাংশ সংস্থায় এত ব্যাপক হারে না হলেও ওয়ার্ক ফ্রম হোম সংস্কৃতি চালু ছিল। ফলে করোনা অতিমারির মধ্যেও তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্র উৎপাদন বা অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো বিপুল লোকসানের মুখে পড়েনি। তবে মহাসঙ্কটের আশঙ্কায় সাবধানে পা ফেলেছে অধিকাংশ সংস্থা। সেই কারণেই গত বছর নিয়োগে তেমন গতি ছিল না।

এ ছাড়া অধিকাংশ শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য ভার্চুয়ালের দিকে ঝুঁকেছে করোনার কারণে। ফলে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রের কর্মীদের চাহিদাও বেড়েছে লাফিয়ে। চাকরি সংক্রান্ত পোর্টাল নকরি ডট কম-এর একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, ‘‘করোনার সময় সবচেয়ে কম প্রভাব পড়া ক্ষেত্রগুলির মধ্যে অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্র।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE