Advertisement
২১ জুলাই ২০২৪
Manish Sisodia

অসুস্থ স্ত্রীর সঙ্গে সপ্তাহে এক দিন দেখা করতে পারবেন মণীশ সিসৌদিয়া, জানাল দিল্লির আদালত

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় সিসৌদিয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছিল দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি এবং সিবিআই। গত ফেব্রুয়ারি মাসে ইডির হাতে গ্রেফতার হন তিনি।

Jailed AAP leader Manish Sisodia gets court permission to meet unwell wife once a week

মণীশ সিসৌদিয়া। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৭:৩৭
Share: Save:

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হওয়া আপ নেতা মণীশ সিসৌদিয়াকে স্বস্তি দিল আদালত। সোমবার দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালত জানিয়েছে, সপ্তাহে এক দিন অসুস্থ স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে পারবেন তিনি। স্ত্রীর চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকদের সঙ্গেও দেখা করতে পারবেন।

সপ্তাহে দু’দিন অসুস্থ স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি দ্বিতীয় বারের জন্য জামিনের আর্জিও জানিয়েছিলেন দিল্লির প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী সিসৌদিয়া। দু’টি আবেদনের ক্ষেত্রেই নোটিস দিয়ে ইডির বক্তব্য জানতে চান বিচারক এমকে নাগপাল। এর আগে গত নভেম্বরে প্যারোলে মুক্তি পেয়ে অসুস্থ স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন সিসৌদিয়া।

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় সিসৌদিয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছিল দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি এবং সিবিআই। গত ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার হন তিনি। তার পর থেকে জেলেই রয়েছেন তিনি। গত ৩০ অক্টোবর তাঁর জামিনের আর্জি খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

২০২১-২২ সালের আবগারি নীতিতে দিল্লি সরকার কয়েক জন মদ ব্যবসায়ীকে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সুবিধা পাইয়ে দিয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। তার বদলে না কি বিপুল অর্থের হাতবদল হয়েছিল। যদিও গোড়া থেকেই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে আপ। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই বিতর্কিত আবগারি নীতিটি অবশ্য বাতিলও করা হয়। কিন্তু সেই বাতিল নীতিতেই বহু টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ করেন দিল্লির লেফ্‌টেন্যান্ট গভর্নর ভিকে সাক্সেনা। তিনি সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেন। পরে তদন্তে নামে ইডিও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE