Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
BJP

ভাগ করে টিফিন খাবেন বিজেপি কর্মীরা

মূলত দলের যে কর্মীরা বসে গিয়েছেন, যারা বিভিন্ন কারণে দলের প্রতি অভিমানে দূরে সরে গিয়েছেন— সেই সব পুরনো কর্মীদের মূলত ওই আলোচনাচক্রে যোগ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে।

—প্রতীকী ছবি।

—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৮ জুন ২০২৩ ০৮:৪৬
Share: Save:

স্কুল-কলেজে পড়ুয়ারা যে ভাবে নিজেদের খাবার ভাগ করে খায়, নিজেদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ বাড়াতে সে ভাবে বিজেপি কর্মীদের খাবার ভাগাভাগি করে খাওয়ার কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিজেপি। যার পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে টিফিন মিটিং। আজ ওই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডা। উপস্থিতি ছিলেন দলের অন্য নেতারাও। সূত্রের মতে, বৈঠকে নড্ডা-সহ অন্য নেতারা বাড়ি থেকে নিজেদের খাবার নিয়ে এসেছিলেন। তার পরে তাঁরা নিজেদের মধ্যে সেই খাবার ভাগাভাগি করে খান। দলের নেতা তরুণ চুঘ বলেন, ‘‘আগামী এক মাস ধরে দেশের ৫৪৩টি লোকসভায় মোট ৪০০০ বিধানসভা কেন্দ্রে এই ‘টিফিন মিটিং’ হবে, যার প্রত্যেকটিতে উপস্থিত থাকবেন ৪০০ জন দলীয় কর্মী। প্রায় ২৫০ জন নেতা ওই বৈঠকে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে উপস্থিত থাকবেন।’’

সব মিলিয়ে চার হাজার বিধানসভায় মোট ১৬ লক্ষ দলীয় কর্মীর কাছে পৌঁছনোর লক্ষ্য নিয়েছে দল। বিজেপি সূত্রের মতে, মূলত দলের যে কর্মীরা বসে গিয়েছেন, যারা বিভিন্ন কারণে দলের প্রতি অভিমানে দূরে সরে গিয়েছেন— সেই সব পুরনো কর্মীদের মূলত ওই আলোচনাচক্রে যোগ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে। মূলত লোকসভা ভোটের আগে বসে যাওয়া কর্মীদের চাঙ্গা করার লক্ষ্যেই ওই জনসংযোগ কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। বৈঠকে উপস্থিতি কর্মীদের সরকারের নয় বছরের সাফল্যের উপর প্রকাশিত বুকলেট যেমন তুলে দেওয়া হবে, তেমনই কোন পথে এগোলে লোকসভায় দল ভাল ফল করতে পারবে তা নিয়েও কথা হবে। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত ওই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে দল। চুঘ বলেন, ‘‘কর্মীরা বাড়ি থেকে যেমন খাবার আনবেন, তেমনই পিকনিকের ধাঁচে রান্নার ব্যবস্থা থাকবে আলোচনা কেন্দ্রগুলিতে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE