Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

‘বন্যায় সর্বহারা মানুষ, আর আপনি মজা লুটছেন!’ ট্রোলড মন্ত্রী আলফোন্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৩ অগস্ট ২০১৮ ১৪:৫৪
ত্রাণ শিবিরে মন্ত্রীর ঘুমনোর এই ছবি ঘিরেই বিতর্ক। সৌজন্যে: কে জে আলফোন্সের টুইটার হ্যান্ডল

ত্রাণ শিবিরে মন্ত্রীর ঘুমনোর এই ছবি ঘিরেই বিতর্ক। সৌজন্যে: কে জে আলফোন্সের টুইটার হ্যান্ডল

১০০ বছরের ভয়াবহতম বন্যার কবলে কেরল। এখনও বহু মানুষ ঘরছাড়া। চারদিকে ত্রাণের জন্য হাহাকার। তার মধ্যেই ত্রাণ শিবিরে রাত কাটানোর ছবি দিয়ে নিজেকে হাস্যস্পদ করে তুললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আলফোন্স জোসেফ কন্নন্থনম ওরফে কে জে আলফোন্স।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে নিয়ে রীতিমতো ব্যাঙ্গ, বিদ্রুপ, তামাশা চলছে। ‘এটা কি প্রচারের সময়?’, ‘বন্যা নিয়ে ছেলেখেলা করছেন?’ এরকম সব প্রশ্নবাণেরীতিমতো ট্রোলড মন্ত্রী আলফোন্স।

ঘটনা বুধবারের। আগের রাতে কেরলের চঙ্গনচেরি এলাকার একটি ত্রাণ শিবিরে রাত কাটান আলফোন্স। সেই ছবি টুইটারে পোস্ট করেন। দেখা যাচ্ছে নীল জিন্স ও নীল টি শার্ট পরা মন্ত্রী মেঝেয় বালিশে মাথা দিয়ে ঘুমোচ্ছেন। তাতে আবার নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, পীযূষ গয়ালের মতো নেতাদের ট্যাগও করেছেন মন্ত্রী।

Advertisement

আরও পড়ুন: বিদেশি ত্রাণে আপত্তি কেন

তাতেই বেজায় চটেছে নেটিজেনরা। আক্রমণে আক্রমণে কার্যত টুইট-শয্যায় শুইয়ে দিয়েছেন মন্ত্রীকে। অসংখ্য রিটুইট করে মন্ত্রীর এই ‘পাবলিসিটি স্টান্ট’কে কার্যত তুলোধোনা করেছেন। ‘নিজে ঘুমিয়েছেন, অন্যদের বিনিদ্র রাত কাটাতে হয়েছে’, ‘পাঁচ মিনিট চোখ বন্ধ করে ছবি তুলে ত্রাণ শিবির থেকে পালিয়ে গিয়েছেন’‘কেরলের মানুষ আপনার এই রাজনৈতিক গিমিক সহজেই ধরতে পারবে’, ‘বন্যায় প্রচারের সুযোগ না নিয়ে ত্রাণ ও পুনর্গঠনে হাত বাড়িয়ে দিন’—বহু রিটুইট, কমেন্টের মধ্যে কয়েকটি নমুনা এরকম।

আরও পড়ুন: মন্দির-শুদ্ধিতে সত্যের সঙ্গী ফৈয়জ, ডেভিসরা

একজন আবার লিখেছেন, ‘হ্যাশট্যাগ কন্নন্থনম স্লিপ চ্যালেঞ্জ’ দিয়েছেন মন্ত্রী। তার জবাবে আবার অন্য এক জন আবার রাস্তায় ঘুমোনোর ছবি দিয়েছেন। নিজে ঘুমোনোর ভান করে অন্যকে দিয়ে সাজিয়ে ছবি তোলা হয়েছে বলেও অন্য একজন মন্তব্য করেছেন।

অথচ আলফোন্স কেরলেরই বাসিন্দা। কোট্টায়াম জেলার মণিমালা এলাকায় জন্ম। রাজনীতিতে আসার আগে ছিলেন আইএএস অফিসার। তাঁর নিজের এলাকাও বিধ্বংসী বন্যার কবলে। ঘটনার গুরুত্ব তিনি বোঝেন না, এমন নয়। তার পরও কেন এমন করতে গেলেন মন্ত্রী, সেটাই বোধগম্য হচ্ছে না বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ মহলের।

দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।

আরও পড়ুন

Advertisement