×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

কোনও বিধি ভাঙেননি কুণাল, দাবি পাইলটের

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ৩১ জানুয়ারি ২০২০ ০৪:৪১
 কমেডিয়ান কুণাল কামরা

কমেডিয়ান কুণাল কামরা

এ বার মুখ খুললেন ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সের সে দিনের উড়ানের পাইলট। তাঁর দাবি, সহযাত্রী টিভি চ্যানেলের সম্পাদকের প্রতি কমেডিয়ান কুণাল কামরার আচরণ অস্বস্তিকর হলেও তা এ সংক্রান্ত আইনের ১ নম্বর ধারাকে লঙ্ঘন করেনি। কোনও যাত্রীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করতে গেলে পাইলটের কথা বলে নেওয়াটা প্রথা হলেও, এ ক্ষেত্রে তা করা হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন এই পাইলট। বিমানমন্ত্রী হরদীপ পুরীর চাপে ইন্ডিগো এবং অন্য বিমান সংস্থাগুলি কুণাল কামরাকে তাদের বিমানে উড়তে দেবে না বলে ঘোষণা করেছে— পাইলটের বয়ানে এই অভিযোগ নতুন মাত্রা পেয়েছে।

মোদী সরকারের সমর্থক একটি সংবাদ চ্যানেলের সম্পাদককে মঙ্গলবার ইন্ডিগোর একটি উড়ানে সহযাত্রী হিসেবে পেয়ে কয়েকটি অস্বস্তিকর প্রশ্ন করেছিলেন কমেডিয়ান কুনাল কামরা। সেই ভিডিয়ো টুইটারে পোস্ট করে সিএএ-এনআরসি-বিরোধী কুণাল বলেন, নিজের অনুষ্ঠানে প্রবল চিৎকার করে অন্যদের বলতে না-দেওয়ার জন্য পরিচিত এই সম্পাদক সহযাত্রীর প্রশ্নে চুপ! ইন্ডিগো তড়িঘড়ি ঘোষণা করে, সহযাত্রীর প্রতি ওই আচরণের জন্য কুণালকে তাদের বিমানে চড়তে দেওয়া হবে না। বিমানমন্ত্রী হরদীপ পুরী এর পরে টুইট করে বলেন, বাকি সব বিমান সংস্থারও উচিত কামরাকে বয়কট করা। তার পরে কয়েকটি সংস্থা সেই ঘোষণা করে। তা নিয়ে বিপুল সমালোচনার মুখে পড়তে হয় মোদী সরকারকে। সোশ্যাল সাইট ভরে যায় নানা মিম-এ।

ওই বিমানের পাইলট এ দিন চি‌ঠি লিখে অভিযোগ করেন— নয় বছরের পেশাদারী জীবনে তিনি কখনও দেখেননি যে পাইলটের সঙ্গে আলোচনা না-করে বিমান সংস্থা কোনও যাত্রীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করছে। এ ক্ষেত্রে সেটাই করা হয়েছে। পাইলট বলেছেন, কুণালের আচরণ এক সহযাত্রীর প্রতি অস্বস্তিকর হলেও তাকে আইনভঙ্গ বলা যায় না। বিমানমন্ত্রী পুরী অবশ্য এ দিন ফের টুইট করে বলেছেন, তিনি আগের অবস্থানে অনড়। ‘কোনও যাত্রী’র এমন আচরণ কিছুতেই সহ্য করা উচিত নয়, যা সহযাত্রীর নিরাপত্তাকে লঙ্ঘন করে।

Advertisement
Advertisement