Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Maharashtra Crisis: মহারাষ্ট্রে বিদ্রোহী বিধায়কের অফিসে ভাঙচুর, অভিযোগ শিবসেনার ‘উদ্ধব-ভক্ত’দের বিরুদ্ধে

বিদ্রোহী নেতাদের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধবের ‘অনুগামী’ বলে পরিচিত শিবসেনা নেতা বিশাল ধনাওয়ারে। বলেন, ‘‘এ তো সবে শুরু!’’

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ২৫ জুন ২০২২ ১৮:৪৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
অফিসে ভাঙচুর চালানোর দৃশ্য

অফিসে ভাঙচুর চালানোর দৃশ্য

Popup Close

মহারাষ্ট্রের ‘মহা বিকাশ আঘাডী’ সরকারকে বিপাকে ফেলা বিদ্রোহী বিধায়ক তানাজি সবন্তের একটি অফিসে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠল শিবসেনার কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। ঘটনাচক্রে, শুক্রবারই একনাথ শিন্ডের নেতৃত্বাধীন শিবসেনার অন্য বিদ্রোহী বিধায়কদের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন দলের রাজ্যসভা সাংসদ সঞ্জয় রাউত। শনিবার বিদ্রোহী বিধায়কদের পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা চেয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে চিঠিও লিখেছেন একনাথ। তার পরেই শিবসেনা বিধায়ক তানাজির অফিসে হামলা চালানো হল। প্রসঙ্গত, বর্তমানে অসমের গুয়াহাটি একনাথ শিবিরের সঙ্গেই রয়েছেন ওসমানাবাদ জেলার পারান্দা বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক তানাজি।

তানাজির মালিকানাধীন ‘ভৈরবনাথ সুগার ওয়ার্কস’ নামে একটি চিনির কারখানার অফিস রয়েছে পুণের কাতরাজের বালাজি এলাকায়। অভিযোগ, শনিবার সকালে একদল শিবসেনা কর্মী-সমর্থক ওই অফিসে ঢুকেই ভাঙচুর চালান। হামলা চালানোর ঘটনায় জড়িত ‘উদ্ধবের অনুগামী’ বলেই পরিচিত শিবসেনা নেতা বিশাল ধনাওয়ারে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘‘তানাজির অফিসে হামলা দিয়ে তো সবে শুরু হল। যাঁরা যাঁরা (বিদ্রোহী নেতারা) বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন, তাঁদের প্রত্যেকের অফিসেই হামলা চালানো হবে আগামী দিনে।’’

এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ডিসিপি সুগার পাটিল বলেন, ‘‘সবন্তের চিনির কারখানায় সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে হামলা চালানো হয়। আমরা অভিযোগ দায়ের করেছি। দ্রুত পদক্ষেপ করা হবে।’’

Advertisement

শুক্রবারই রাজ্যসভা সাংসদ সঞ্জয় বিদ্রোহী বিধায়কদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘‘ওঁদের ফেরার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। এখন ওঁরা মুম্বইয়ে পা দিয়ে দেখুন না! বিধায়কদের মুম্বইয়ে ফেরা ও রাজ্যে চলাফেরা কঠিন হয়ে পড়বে।’’ এর পরেই শনিবার উদ্ধবকে চিঠি লিখে বিদ্রোহী নেতাদের পরিবারকে নিরাপত্তা দেওয়ার দাবি করেছেন একনাথ। তাঁর অভিযোগ, ‘বিদ্বেষবশত আমাদের শিবিরের ৩৮ জন বিধায়কের পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা প্রত্যাহার করেছে মহারাষ্ট্র সরকার।’ এ নিয়ে শোরগোলের মধ্যেই সবন্তের দফতরের হামলার অভিযোগ উঠল ‘উদ্ধব-ভক্ত’ শিবসেনা কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে।


(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement