Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Ajit Pawar: অজিত পওয়ারের হাজার কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল আয়কর দফতর

মহারাষ্ট্রে মন্ত্রীর ২৭টি জমিও বাজেয়াপ্ত করেছে আয়কর কর্তারা। যার আনুমানিক দাম কমপক্ষে ৫০০ কোটি টাকা। 

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০২ নভেম্বর ২০২১ ১১:৪৭
অজিত পাওয়ার।

অজিত পাওয়ার।
ফাইল চিত্র।

মহরাাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পওয়ারের হাজার কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল আয়কর দফতর। বেনামি সম্পত্তি আইনে অজিতের পাঁচটি স্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি কো-অপারেটিভ চিনির কারখানা ছাড়াও রয়েছে মুম্বইয়ের নরিম্যান পয়েন্টে নির্মল টাওয়ার, গোয়ার একটি রিসর্ট, দিল্লির একটি অফিস এবং বাড়ি। এগুলি ছাড়া মহারাষ্ট্রে মন্ত্রীর ২৭টি জমিও বাজেয়াপ্ত করেছে আয়কর কর্তারা। যার আনুমানিক দাম কমপক্ষে ৫০০ কোটি টাকা। সূত্রের খবর, এই সম্পত্তির সবক’টিরই মালিক অজিত অথবা তাঁর পরিবারের কোনও না কোনও সদস্য।

ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির প্রধান শরদ পওয়ারের ভাইপো অজিত। তিনি শরদের ভাই অনন্তরাও পওয়ারের পুত্র। গত মাসে অজিতের বোনের বাড়িতেও তল্লাশি চালিয়েছিল আয়কর দফতর। এর আগে জুলাই মাসে ২৫ হাজার কোটি টাকার একটি দুর্নীতিতে অজিতের নাম জড়িত থাকার কথা জানিয়েছিল আয়কর বিভাগ। মহারাষ্ট্র স্টেট কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক জালিয়াতির ঘটনায় অজিতের নাম প্রকাশ্যে আসে। অর্থ তছরূপ মামলায় তখন সাতারার একটি চিনি তৈরির কারখানা বাজেয়াপ্ত করেছিল আয়কর দফতর। এই কারখানাটি নিলামে অত্যন্ত কম দামে একটি সংস্থাকে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছিল ব্যাঙ্কটির বিরুদ্ধে।

Advertisement

সাতারার ওই চিনি কারখানার অধিকাংশ শেয়ার ছিল স্পার্কলিং সয়েল প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি সংস্থার। যার মালিকানা অজিত পাওয়ার এবং তাঁর স্ত্রী সুনেত্রা পাওয়ারের। যদিও মঙ্গলবার অজিতের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার ঘটনাটির সঙ্গে সেই ব্যাঙ্ক জালিয়াতির ঘটনার সরাসরি যোগ রয়েছে কি না তা স্পষ্ট করে জানায়নি আয়কর বিভাগ।

এর আগে যখন অজিতের বোনের বাড়িতে আয়কর দফতর অভিযান চালিয়েছিল, তখন অজিত জানিয়েছিলেন, তিনি তাঁর নামে থাকা সমস্ত সম্পত্তির যথাযথ আয়কর দিয়ে থাকেন। অজিত বলেছিলেন, ‘‘আমি নিজে অর্থমন্ত্রী। তাই আর্থিক বিষয় সংক্রান্ত শৃঙ্খলা সম্পর্কে আমি সম্পূর্ণ অবগত।’’

আরও পড়ুন

Advertisement