Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪

প্রেম ফেরানোয় পুড়িয়ে খুন তরুণীকে

সন্ধ্যা রানি সেকেন্দরাবাদের এক সংস্থায় রিসেপশনিস্ট-এর কাজ করতেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিট নাগাদ, বাড়ি ফেরার সময়, কার্তিক তাঁর রাস্তা আটকায়।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ শেষ আপডেট: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৩:২৬
Share: Save:

বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ায় এক তরুণীকে রাস্তায় জীবন্ত জ্বালিয়ে দিল প্রাক্তন সহকর্মী। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের কাছেই লালগুড়ার প্রকাশ্য রাস্তায়, বৃহস্পতিবার ভর সন্ধেয়। শুক্রবার সকালে আক্রান্ত তরুণী হাসপাতালে মারা গেছেন। তাঁর নাম সন্ধ্যা রানি। বয়স ২৪। তাঁর মৃত্যুকালীন জবানবন্দির ভিত্তিতে, পুলিশ সাই কার্তিক নামের ২৫ বছরের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে।

সন্ধ্যা রানি সেকেন্দরাবাদের এক সংস্থায় রিসেপশনিস্ট-এর কাজ করতেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিট নাগাদ, বাড়ি ফেরার সময়, কার্তিক তাঁর রাস্তা আটকায়। সন্ধ্যা কেন চাকরি ছাড়ছেন না, কেন তাকে বিয়ে করছেন না, এই নিয়ে দু’জনের ঝগড়া শুরু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কার্তিক আচমকা জামার ভেতর থেকে কেরোসিনের বোতল বের করে। মুহূর্তের মধ্যে সন্ধ্যার গায়ে বোতল উপুড় করে দেশলাই ধরিয়ে দেয়। কেউ কিছু বোঝার আগেই বাইকের মুখ ঘুরিয়ে উধাও হয়ে যায় কার্তিক। দাউদাউ করে জ্বলছিলেন মেয়েটি। রাস্তার লোক ছুটে গিয়ে আগুন নেভান। তত ক্ষণে সন্ধ্যার শরীরের ৭০% পুড়ে গিয়েছে।

সন্ধ্যার মৃত্যুর পর, পুলিশ কর্তা সুমতি জানান, বছর দুই আগে এক সঙ্গে কাজ করত দুই তরুণ-তরুণী। তখন থেকেই সন্ধ্যাকে উত্ত্যক্ত করত কার্তিক। সন্ধ্যা অত্যন্ত পরিশ্রমী স্নাতক পাশ একটি মেয়ে। এ দিকে, কার্তিক স্কুলের গণ্ডিও পেরোয়নি। তাকে কেন বিয়ে করতে যাবেন সন্ধ্যা? প্রত্যাখ্যান সহ্য করতে পারেনি কার্তিক।

তদন্তে জানা গিয়েছে, কার্তিক বছর দুই আগেই চাকরি হারায়। তার পর প্রচণ্ড মদ্যপান শুরু করে। কিন্তু সন্ধ্যাকে সে ভোলেনি। ফোন করা, বা পিছু নেওয়াও ছাড়েনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE