Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

খাজা কেনার ৫ টাকার জন্য ২০ মাসের মেয়েকে আছড়ে মারল বাবা

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৪:২৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

মেয়েকে মিষ্টি কিনে দেবেন বলে ৫ টাকা চেয়েছিলেন স্ত্রী। রাগে নিজের ২০ মাসের মেয়েকে আছড়ে মারল বাবা। ২ ফেব্রুয়ারি ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের গোন্দিয়া জেলাতে। শিশুটির মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মেয়েকে খুনে অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম বিবেক উইকে। তার বয়স ২৮ বছর। মুম্বই থেকে প্রায় ৯০০ কিলোমিটার দূরে লোনারা গ্রামের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি। পুলিশ জানিয়েছে, বাচ্চাটি কাঁদছিল। তাই তাঁর মা মেয়েকে ‘খাজা’ কিনে দেবেন বলে বিবেকের কাছে ৫ টাকা চেয়েছিলেন। তার পরই মেয়েকে আছড়ে মারেন ওই ব্যক্তি।

২০ মাসের বাচ্চাটির মা বর্ষা পুলিশকে বলেছেন, ‘‘সন্ধ্যায় আমার স্বামী বাড়ি ফিরলে, মেয়েকে খাজা কিনে দেব বলে ৫ টাকা চেয়েছিলাম। বিবেক বলে খুচরো নেই। তার হিংস্র হয়ে চিৎকার করতে থাকে এবং মেয়েকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে বাইরে আছাড় মারে। আমি আটকাতে গেলে আমাকেও মেরেছে।’’ এর পর বর্ষা নিজের মেয়েকে নিয়ে তিরোদা হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে বাচ্চাটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

Advertisement

তার পরই স্বামী বিবেকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন বর্ষা। তার অভিযোগের ভিত্তিতে বিবেককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিরোদা থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার যোগেশ পারধি বলেছেন, ‘‘আমরা বিবেককে গ্রেফতার করেছি বাচ্চাটির মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে। অভিযুক্ত বাচ্চাটিকে মিষ্টি কেনার ৫ টাকার জন্য আছড়ে মেরেছে।’’ ওই অফিসার আরও জানিয়ছেন, যুগল ২০১৮ সালে বিয়ে করেন। মত্ত অবস্থায় অত্যাচারের জন্য বর্ষা বিবেকের সঙ্গে থাকতেন না। ২০১৯ সালে ফের বিবেকের সঙ্গে থাকা শুরু করেন তিনি।

আরও পড়ুন

Advertisement