×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৪ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

‘লভ জিহাদ’ বিদ্বেষ! মালদহের যুবককে কুপিয়ে, পুড়িয়ে খুন রাজস্থানে

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৬:১৬
ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, শম্ভুলাল নামের এই ব্যক্তিই খুন করছেন। ছবি: সংগৃহীত।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, শম্ভুলাল নামের এই ব্যক্তিই খুন করছেন। ছবি: সংগৃহীত।

ভিন্‌ রাজ্যে কাজ করতে গিয়ে ‘লভ জিহাদ’ বিদ্বেষের শিকার হতে হল এক যুবককে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, তাঁর বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের মালদহের সৈয়দপুরে। কয়েক বছর আগে কাজের সূত্রে তিনি রাজস্থান গিয়েছিলেন। তবে, যে ভাবে তাঁকে খুন হতে হয়েছে, তা দেখে শিউরে উঠতে হয়। গোটা ঘটনার ভিডিও-ও করা হয়েছে! ওই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে রাজস্থান প্রশাসন।

ভাইরাল ওই ভিডিও-য় দেখা যাচ্ছে, চার দিকে গাছপালা। তার মধ্যেই একফালি রাস্তা। সেখানে এক যুবক দাঁড়িয়ে রয়েছে। তার পরনে লাল জামা। সাদা প্যান্ট। গলায় জড়ানো সাদা মাফলার। গাল জুড়ে হাল্কা দাড়ি। যুবকটির ডান হাতে ধরা চপার। তাই নিয়ে সে এগোচ্ছে কাছেই মাটিতে পড়ে থাকা এক ব্যক্তির দিকে। এর পর সেই চপার দিয়ে সে একাধিক বার কোপাতে থাকে সেই মানুষটিকে। তার পর তাঁর শরীরে সে ঢেলে দেয় কেরোসিন। এ বার তাতে ঠুকে দেওয়া হয় আগুন। ওই ভিডিওতে লাল জামার যুবককে উগ্র কথা বলতেও শোনা গিয়েছে। সেখানে তার দাবি, এই ঘটনা ‘লভ জিহাদে’র ফল।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে রাজস্থানের রাজসমন্দে জংলি রাস্তায় একটি অর্ধদগ্ধ দেহ উদ্ধার হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ওই দেহটি আফরাজুল (৪৫) নামে এক শ্রমিকের। এ রাজ্যের মালদহ থেকে আফরাজুল রাজস্থানে দিনমজুরির জন্য গিয়েছিলেন। কয়েক দিন ধরেই তিনি নিঁখোজ ছিলেন। ওই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই পুলিশ গ্রেফতার করে লাল জামা পরা ওই যুবককে। তার নাম শম্ভুলাল। ‘লভ জিহাদ’ শব্দটি শুনে মনে করা হচ্ছে, সে কোনও কট্টরপন্থী দলের সদস্য বা কর্মী। পুলিশের দাবি, আফরাজুল, শম্ভুলাল ছাড়াও অন্য কেউ সেখানে ছিল। সে-ই গোটা ঘটনাটা ক্যামেরাবন্দি করেছে। ওই ভিডিওতে শম্ভুলালকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘‘আমাকে যদি মরতে হয়, তা হলে আমি অন্য কাউকে মারব।’’

Advertisement



খুনের ভিডিওটি আর যাতে না ছড়ায়, সে জন্য রাজসমন্দ জেলা জুড়ে সাময়িক ভাবে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত।

কিন্তু, আফরাজুলকে কেন এ ভাবে মারা হল? কেন তার সঙ্গে জুড়ে গেল ‘লভ জিহাদ’? প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, রাজস্থানে আফরাজুলের সঙ্গে এক হিন্দু যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। তাঁরা বিয়েও করেন। এবং ওই যুবতী নিজের ধর্ম পাল্টে ফেলেন বলে পুলিশ জানতে পেরেছে। সেই কারণেই এই খুন কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

আধার জুড়তে সময় বাড়াচ্ছে কেন্দ্র, তবে সবার জন্য নয়


ভিডিওটি আর যাতে না ছড়ায়, সে জন্য রাজসমন্দ জেলা জুড়ে সাময়িক ভাবে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। রাজস্থানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গুলাবচন্দ কাটারিয়া বলেন, “এক জনকে খুন করে তার ভিডিও বানানো হচ্ছে! অবিশ্বাস্য! ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে বিশেষ তদন্তকারী (সিট) দলও।’’ ঘটনার তীব্র নিন্দা করে টুইট করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন

আকাশসীমা ভেঙে ঢুকেছে ভারতীয় ড্রোন: চিন

রাজসমন্দের পুলিশ সুপার রাজেন্দ্র সিংহ জানিয়েছেন, সম্ভবত কাজের টোপ দিয়েই আফরাজুলকে ওই জঙ্গল এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনায় জড়িত তৃতীয় ব্যক্তির খোঁজ চলছে।



Tags:
Murder Love Jihad Rajasthanলভ জিহাদ’

Advertisement