×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

রেষারেষির জের! কোয়মবত্তূরে যাত্রিবাহী বাসে লরির ধাক্কা, মৃত ১৯

সংবাদ সংস্থা 
কোয়েমবত্তূর ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৯:২৯
দুর্ঘটনার জেরে এ ভাবেই দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে বাসটি। ছবি টুইটার থেকে সংগৃহীত।

দুর্ঘটনার জেরে এ ভাবেই দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে বাসটি। ছবি টুইটার থেকে সংগৃহীত।

কেরল রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন (কেএসআরটিসি)-এর বাসের সঙ্গে মালবাহী কন্টেনারের মুখোমুখি সংঘর্ষের জেরে মৃত্যু হয়েছে ১৯ জন যাত্রীর। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৩টে নাগাদ এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তামিলনাড়ুর কোয়মবত্তূরে। ঘটনার জেরে এখনও অবধি ১৯ জন যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১৪ জন পুরুষ ও পাঁচ জন মহিলা। দুর্ঘটনায় আহত ২৩ জন। চিকিৎসার জন্য তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

দুর্ঘটনার কারণ সম্বন্ধে দু’রকম তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। একটি সূত্র জানাচ্ছে, কেরল পরিবহণ সংস্থার বাসটি বেঙ্গালুরু থেকে এনার্কুলাম যাচ্ছিল। উল্টোদিক থেকে আসা মালবোঝাই কন্টেনারটি অন্য একটি গাড়িকে ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারে যাত্রীবোঝাই বাসে। অন্য একটি সূত্রের খবর, কন্টেনারের টায়ার ফেটে গিয়ে সেটি নিয়ন্ত্রণ হারায়। তার জেরেই এই দুর্ঘটনা। সে সময় বাসে ৪৮ জন যাত্রী ছিলেন। দুর্ঘটনার কথা স্বীকার করে কেরলের পরিবহণ মন্ত্রী একে সচিন্দ্রন সংবাদমাধ্যমকে বলেছন, ‘‘বাসে ৪৮ জন যাত্রী ছিলেন। তাঁদের অধিকাংশই এনার্কুলাম, পালাক্কড়, ত্রিশূরের বাসিন্দা।’’ উদ্ধার কার্য চালানো হচ্ছে ও আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এই দুর্ঘটনার জেরে বাসটি পুরো দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে। বাসচালক ও কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

মৃতদের দেহ নিয়ে আসার ও আহতদের সহায়তা করার জন্য তিরুপুরের জেলাশাসককে নির্দেশ দিয়েছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।


Advertisement