Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পুলওয়ামা হামলা নিয়ে এনআইএ-র চার্জশিটে মাসুদ আজহারই মূল ষড়যন্ত্রী

এনআইএ-র ডিআইজি সনিয়া নারাং এদিন জানিয়েছেন, চার্জশিটে মাসুদ, রউফ-সহ মোট অভিযুক্তের সংখ্যা ২০।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৫ অগস্ট ২০২০ ১৬:৪২
মাসুদ আজহার— ফাইল চিত্র।

মাসুদ আজহার— ফাইল চিত্র।

পুলওয়ামা সন্ত্রাসের চার্জশিটে ‘মূল পরিকল্পনাকারী’ হিসেবে পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। সূত্রের খবর, জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ) তৈরি ৫,০০০ পাতার ওই চার্জশিটে অভিযুক্ত করা হয়েছে মাসুদের ভাই রউফ আসগরকেও। সোমবার জম্মুর বিশেষ আদালতে ওই চার্জশিট পেশ করা হয়।

এনআইএ-র ডিআইজি সনিয়া নারাং এদিন জানিয়েছেন, চার্জশিটে মাসুদ, রউফ-সহ মোট অভিযুক্তের সংখ্যা ২০। ষড়যন্ত্রকারী জইশ নেতা এবং হামলাকারী নিহত পাক জঙ্গিদের পাশাপাশি অভিযুক্ত তালিকায় আরও দেড় ডজন ব্যক্তির নাম রয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে, পাক জঙ্গিদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা এবং অন্য সহায়তার অভিযোগ আনা হয়েছে। নারাং বলেন, ‘‘আমরা আজ আদালতে দীর্ঘ চার্জশিটটি জমা দিচ্ছি। এতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিস্তৃত তথ্যপ্রমাণ দেওয়া হয়েছে।’’

হামলাকারী জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গীদের সঙ্গে ফোনে রউফের সঙ্গে কী কথা হয়েছিল সে বিষয়ে চার্জশিটে বিস্তারিত প্রমাণ রয়েছে বলে জানিয়েছেন নারাং। পুলওয়ামায় নিহত আত্মঘাতী জঙ্গি আদিল আহমেদ দার এবং তাকে বিস্ফোরক সরবরাহকারী জইশ কম্যান্ডার উমর ফারুক ও কামরানের নাম রয়েছে চার্জশিটে। ফারুক ও কামরান চলতি বছর সেনা অভিযানে নিহত হয়েছে। জইশ ফিদায়েঁ বাহিনীর গাড়ি চালক শাকির বশির মাগ্রে এবং পাক জঙ্গিদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করার অভিযোগে ধৃত মহম্মদ ইকবাল রায়েরের নামও রয়েছে তালিকায়।

আরও পড়ুন: প্রশান্তের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা গেল নতুন বেঞ্চে

গত বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে হামলার ঘটনায় ৪০ জন জওয়ান নিহত হয়েছিলেন। পরের দিনই জইশের তরফে হামলার দায় স্বীকার করা হয়েছিল। পুলওয়ামা সন্ত্রাসের জবাবে পাকিস্তানের বালাকোটের জঙ্গি শিবিরে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। তার জেরে দু’দেশের মধ্যে সংঘাত-পরিস্থিতি তৈরি হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: বছর ২১ পরে, প্রত্যাখ্যান অস্ত্রে জয় দ্বিতীয় বার

ভারতের তরফে মাসুদকে রাষ্ট্রপুঞ্জ নিরাপত্তা পরিষদের ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী’ তালিকাভুক্ত করার চেষ্টাও শুরু করা হলেও তাতে বাগড়া দেয় চিন। তবে সংশোধিত ইউএপিএ (আনল’ফুল অ্যাকটিভিটিজ প্রিভেনশন অ্যাক্ট) আইনে দাউদ ইব্রাহিম, জাকিউর রহমান লকভি, হাফিজ মহম্মদ সঈদের সঙ্গে মাসুদকেও ‘জঙ্গি’ ঘোষণা করেছে নয়াদিল্লি।

আরও পড়ুন

Advertisement