×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৪ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

Income tax raid: দৈনিক ভাস্করের অফিসে আয়কর হানা, নেপথ্যে কি করোনা নিয়ে কেন্দ্রকে লাগাতার আক্রমণ?

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২২ জুলাই ২০২১ ১১:০২


—ছবি সংগৃহীত।

কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে দৈনিক সংবাদপত্র ‘দৈনিক ভাস্কর’-এর একাধিক অফিসে হানা দিলেন আয়কর দফতরের আধিকারিকরা। বৃহস্পতিবার দিল্লি, মধ্যপ্রদেশের ভোপাল, রাজস্থানের জয়পুর, গুজরাতের আমদাবাদ-সহ পত্রিকার বেশ কয়েকটি অফিসে হানা দিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নিশানা করলেন তৃণমূলের রাজ্যসভা সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। টুইট করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

Advertisement

প্রসঙ্গত, কোভিড দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ে দেশ জুড়ে চরম অব্যবস্থা নিয়ে লাগাতার লেখালেখি চলেছিল ‘দৈনিক ভাস্কর’-এ। বিরোধীদের দাবি, সরকারি তরফে সে সময়ে যা যা দাবি করা হয়েছিল, সেই সব দাবিকে খণ্ডন করে সত্য তুলে ধরার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছিল এই সংবাদপত্র। তার জেরে সরকারের অস্বস্তি বেড়েছিল বলে দাবি তাঁদের।

দৈনিক ভাস্করের অফিসে আয়কর দফতরের হানা দেওয়া প্রসঙ্গে টুইটারে মমতা লেখেন, ‘দেশের সাংবাদিক এবং সংবাদমাধ্যমগুলির উপর আক্রমণ গণতন্ত্রের কণ্ঠরোধেরই প্রচেষ্টা। অতিমারি পরিস্থিতির মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্যর্থতাই তুলে ধরেছিল দৈনিক ভাস্কর।’ পরে আরও একটি টুইটে তিনি লেখেন, ‘যারা সত্য তুলে ধরছে, তাদের মুখ বন্ধ করার এই প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা করছি। মিডিয়ার সঙ্গে যুক্তদের বলব, আপনারা শক্ত থাকুন। আমরা একসঙ্গে থাকলে স্বৈরাচারি শক্তি কোনও দিনই জিততে পারবে না।’

ডেরেক লেখেন, ‘মোদী-শাহ যে ভয় পেয়েছেন, তার আরও একটি প্রমাণ। যে সব মিডিয়ার মেরুদণ্ড রয়েছে, তারা শক্ত থাকুন।’



Advertisement