×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

Mehul Choksi: ধৃত মেহুল চোক্সীকে এ বার ‘নিষিদ্ধ অভিবাসী’ ঘোষণা করল ডমিনিকা

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১০ জুন ২০২১ ১১:১৪
মেহুল চোক্সী।

মেহুল চোক্সী।
ফাইল চিত্র।

পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক (পিএনবি) প্রতারণা-কাণ্ডে অভিযুক্ত মেহুল চোক্সীকে ‘নিষিদ্ধ অভিবাসী’ ঘোষণা করল ডমিনিকা। ক্যারিবীয় দ্বীপরাষ্ট্রটির তরফে বুধবার সরকারি ভাবে এ কথা জানানো হয়েছে। গত ২৬ মে বেআইনি ভাবে ডমিনিকায় প্রবেশের অভিযোগে মেহুলকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

প্রায় ১৩,৫০০ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক প্রতারণা মামলায় অভিযুক্ত হিরে ব্যবসায়ী মেহুলকে ভারতে ফেরত আনার জন্য নয়াদিল্লির তরফে আবেদন জানানো হলেও গত সপ্তাহে তা খারিজ করে দিয়েছিল ডমিনিকা সরকার। ভারতের আবেদনের প্রেক্ষিতে আগেই মেহুলের উপর রেড কর্নার নোটিস জারি করেছিল ইন্টারপোল। অ্যান্টিগা সরকারও নয়াদিল্লির প্রস্তাবে সায় দিয়েছিল। তা সত্ত্বেও মেহুলের প্রত্যর্পণে রাজি হয়নি ডমিনিকা।

মেহুল ২০১৮ সালে ভারত থেকে পালিয়ে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের আর এক দেশ অ্যান্টিগায় আশ্রয় নিয়েছিলেন। সে দেশের নাগরিকত্বও পেয়েছিলেন। গত ২৩ মে খবর আসে, তিনি নিখোঁজ। সে দিন বিকেলে জলি হারবার বন্দরে তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছিল বলে জানায় সে দেশের সংবাদমাধ্যম। এর তিন দিন পরে ডমিনিকায় মেহুল এবং তাঁর বান্ধবী বারবারা জারাবিকার সন্ধান পায় সে দেশের পুলিশ।

Advertisement

মেহুলের আইনজীবীর দাবি, তাঁর মক্কেলকে অপহরণ করে ডমিনিকা নিয়ে গিয়েছিলেন বারবারা। বুধবার ডমিনিটা সরকার ‘নিষিদ্ধ অভিবাসী’ ঘোষণা করায় তাঁকে অ্যান্টিগা ফেরত পাঠানোর পথ মসৃণ হল বলে মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি তাঁর গ্রেফতারিও বৈধতা পেল। প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে ডমিনিকার আদালতে মেহুলের আইনজীবী দাবি করেছিলেন, তাঁর মক্কেলের গ্রেফতারি বেআইনি। কারণ মেহুলকে আদালত ‘নিষিদ্ধ অভিবাসী’ ঘোষণা করেনি।

Advertisement