Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলিকে ব্যবহার করে চরিত্রহনন চলছে’, চিদম্বরমের পাশে দাঁড়িয়ে তোপ রাহুল-প্রিয়ঙ্কার

এই পরিস্থিতিতেই কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির এই তৎপরতা নিয়ে সরব হলেন রাহুল। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘ইডি, সিবিআই এবং একশ্রেণির মেরুদণ্ডহীন সংবাদ মাধ্

২১ অগস্ট ২০১৯ ১৪:৫৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

Popup Close

গোড়া থেকেই কংগ্রেস নেতারা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব ছিলেন। পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে সিবিআই-ইডির তৎপরতা নিয়ে এবং প্রথম প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন রাহুল গাঁধীও। চিদম্বরমকে বিপাকে ফেলতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলিকে কাজে লাগাচ্ছে মোদী সরকার— টুইটারে তোপ দাগলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। এক শ্রেণির সংবাদ মাধ্যমের ভূমিকার সমালোচনাও করেছেন রাহুল। চিদম্বরম ইস্যুতে সরব হয়েছেন প্রিয়ঙ্কা গাঁধীও।

আইএনএক্স মিডিয়ায় বিদেশি বিনিয়োগে অসঙ্গতির অভিযোগে চিদম্বরমের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে ইডি এবং সিবিআই। মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্টে তাঁর আগাম জামিনের আর্জি খারিজ হতেই চূড়ান্ত তৎপরতা শুরু করে দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। চিদম্বরমের দিল্লির বাড়িতেও যান দুই সংস্থার অফিসাররা।তার পর থেকেই তাঁর গ্রেফতারির জল্পনা চরমে। কিন্তু চিদম্বরম বাড়িতে ছিলেন না। এর মধ্যেই আজ বুধবার সকালে তাঁর বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস জারি করেছে ইডি। চিদম্বরম দ্বারস্থ হয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের।

এই পরিস্থিতিতেই কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির এই তৎপরতা নিয়ে সরব হলেন রাহুল। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘ইডি, সিবিআই এবং একশ্রেণির মেরুদণ্ডহীন সংবাদ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে চিদম্বরমের চরিত্রহননের চেষ্টা করেছে মোদী সরকার। ক্ষমতার এই নির্লজ্জ অপব্যবহারের তীব্র নিন্দা করি।’

Advertisement

আরও পডু়ন: এখনও স্বস্তির ইঙ্গিত নেই সুপ্রিম কোর্টে, চিদম্বরমের বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস ইডির

আরও পড়ুন: মেহের তারারের সঙ্গে ‘ঘনিষ্ঠ’ সম্পর্ক ছিল তারুরের, সুনন্দা মামলায় সওয়াল দিল্লি পুলিশের

মোদী সরকারের তীব্র বিরোধিতা করাতেই কোপে পড়েছেন— চিদম্বরমের পাশে দাঁড়িয়ে বক্তব্য প্রিয়ঙ্কা গাঁধীর। কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ঙ্কার টুইট, ‘অত্যন্ত যোগ্যতাসম্পন্ন ও সম্মাননীয় রাজ্যসভার সদস্য পি চিদম্বরম দেশের জন্য দশকের পর দশক কাজ করছেন। সামলেছেন অর্থ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। উনি নির্দ্বিধায় সত্যি কথা বলছেন এবং সরকারের ব্যর্থতা তুলে ধরছেন। কিন্তু সেই সত্যটা সহ্য করতে পারছেন না কাপুরুষরা। তাই নির্লজ্জ ভাবে চিদম্বরমকে অপদস্থ করার চেষ্টা চলছে।’


একই সঙ্গে প্রিয়ঙ্কার ঘোষণা, ‘আমরা সত্যের জন্য লড়াই চালিয়ে যাব, তার ফল যাই হোক।’ প্রিয়ঙ্কার পাশাপাশি অধিকাংশ কংগ্রেস নেতাই পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement