×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

সেনার পাশে থাকার বার্তা দেবে সংসদ, অধিবেশনের আগে লাদাখ নিয়ে আশা মোদীর

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০:১১
শুরু হল লোকসভার অধিবেশন। ছবি: দূরদর্শনের ভিডিয়ো থেকে নেওয়া

শুরু হল লোকসভার অধিবেশন। ছবি: দূরদর্শনের ভিডিয়ো থেকে নেওয়া

দেশ জুড়ে লাগামছাড়া করোনা সংক্রমণ। পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারত-চিন সঙ্ঘাত। অন্তত ছ’টি অধ্যাদেশ ও ছ’টি বিল পাশ করানোর চেষ্টায় শাসক দল। অন্য দিকে অধিবেশন শুরুর আগে সর্বদল বৈঠক বাতিল, অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্ব বাতিল ও জিরো আওয়ারের সময় কমানো-সহ নানা ইস্যুতে সরব বিরোধীরা। এমনই আবহে কাটছাঁট করে ১৮ দিনের জন্য শুরু হল লোকসভার বাদল অধিবেশন। চলবে ১ অক্টোবর পর্যন্ত। অধিবেশন শুরুর আগে পূর্ব লাদাখ ও করোনা ইস্যুতে দেশবাসীকে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় নিয়ন্ত্রণরেখায় সেনা সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। তার পর সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনার পর সেনা সরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কিন্তু গত দু’সপ্তাহে নতুন করে প্যাংগং লেক এলাকায় অন্তত চার বার চিনা আগ্রাসনের চেষ্টা হয়েছে। যদিও ভারত তা রুখে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে এ দিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘আশা করি সংসদ ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই বার্তা দেবে যে, দেশবাসী আমাদের সেনা জওয়ানদের পাশে আছে।’’

চিন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদী এ দিন আরও বলেন, ‘‘আমাদের সেনা জওয়ানরা সীমান্তে অত্যন্ত দৃঢ় ভাবে দেশকে রক্ষা করতে প্রস্তুত রয়েছে। অতি উচ্চতায় প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়ছে। কিছু দিনের মধ্যেই বরফ পড়তে শুরু করবে। যাঁরা সীমান্ত রক্ষা করছে, দেশ তাঁদের পাশে আছে— আমি নিশ্চিত, সংসদ এক সুরে এই বার্তা দেবে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: করোনা আবহে কেমন প্রস্তুতি সংসদে, কোন কোন বিল আসছে দেখে নিন

আরও পড়ুন: উমর খালিদ গ্রেফতার, দিল্লি হিংসা মামলায়, দেওয়া হল ইউএপিএ

করোনা সংক্রমণ এড়াতে সংসদের উভয় কক্ষেই সাংসদদের বসার জন্য অন্য বারের চেয়ে আলাদা বন্দোবস্ত করা হয়েছে। লোকসভার অধিবেশন কক্ষ, গ্যালারি এবং রাজ্যসভার কক্ষ ও গ্যালারিতেও সাংসদরা বসবেন। প্রথম দিন বাদে অন্য দিনগুলিতে প্রথমার্ধে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত প্রথমে রাজ্য সভার অধিবেশন হবে। দ্বিতীয়ার্ধে বিকেল ৩টে থেকে সন্ধ্যে ৭টা পর্যন্ত চলবে লোকসভার অধিবেশন। করোনা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বার্তা, যত দিন না টিকা আসছে, করোনার সুরক্ষা থেকে সরে আসা যাবে না। তিনি বলেন, ‘‘বিশেষ পরিস্থিতিতে এই বাদল অধিবেশন হচ্ছে। সাংসদরাও কোভিড সংক্রমণের মধ্যেই কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’’

Advertisement