Advertisement
২২ মার্চ ২০২৩

‘#মিটু’ আন্দোলন চালিয়ে যাব, বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্ত্বেও অনড় নন্দিতা

নন্দিতার বাবা চিত্রশিল্পী যতীন দাসের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলেন নিশা বরা নামে এক উদ্যোগপতি। নিশার অভিযোগ, ১৪ বছর আগে নিজের স্টুডিয়োতে যতীন তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন।

নন্দিতা দাস

নন্দিতা দাস

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০১৮ ০৩:৪৯
Share: Save:

অভিযোগ উঠেছে শিল্পী বাবার বিরুদ্ধে। কিন্তু তিনি পিছু হটবেন না। ‘মিটু’ আন্দোলন চালিয়েই যাবেন বলে আজ জানিয়ে দিলেন অভিনেত্রী-পরিচালিকা নন্দিতা দাস।

Advertisement

দিন কয়েক আগেই কঙ্কনা সেনশর্মা, কিরণ রাও-সহ নন্দিতা বলেছিলেন, যে সব অভিনেতা বা কলাকুশলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছে, তাঁদের সঙ্গে কখনও কাজ করবেন না তাঁরা। এর পর গত কাল নন্দিতার বাবা চিত্রশিল্পী যতীন দাসের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলেন নিশা বরা নামে এক উদ্যোগপতি। নিশার অভিযোগ, ১৪ বছর আগে নিজের স্টুডিয়োতে যতীন তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন। চিত্রশিল্পী অবশ্য গোটা বিষয়টাকে ‘অশালীন অভিযোগ’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। যতীনের কথায়, ‘‘আমি স্তম্ভিত। ওঁকে চিনি না, কোনও দিন দেখাও হয়নি। স্রেফ মজার জন্য কিছু লোকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার খেলা চলছে।’’ কিন্তু নন্দিতা এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি গত কাল।

আজ অভিনেত্রী ফেসবুকে লেখেন, তাঁর বাবার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খুবই অসস্তিকর, কিন্তু অভিযোগকারিণীদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ে যাবেন তিনি।

অভিনেতা অলোক নাথের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন লেখিকা-পরিচালিকা বিনতা নন্দা। আজ তিনি থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। নন্দার দাবি, ১৯ বছর আগে তাঁকে ধর্ষণ করেছিলেন অলোক। এ দিন বিনতা বলেন, ‘‘খুব সহজ ছিল না থানায় গিয়ে বয়ান রেকর্ড করা। কিন্তু হালকা লাগছে।’’

Advertisement

অভিযোগকারিণীদের পাশে আছি জানালেও নন্দিতা আজ এটাও বলেন, কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার আগে নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন। তিনি লিখেছেন, ‘‘আমি আন্দোলন চালিয়েই যাব, বাবার বিরুদ্ধে যত আপত্তিকর অভিযোগ উঠুকই না কেন। তবে বাবা কিন্তু অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।’’ আরও লেখেন, ‘‘আমি শুরু থেকে বলে এসেছি, সকলের (নারী কিংবা পুরুষ) কথা শোনা দরকার। যাতে অভিযোগকারী নির্ভয়ে মুখ খুলতে পারে। একই সঙ্গে অভিযোগ তোলার আগে নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন, না হলে আন্দোলনের গুরুত্বটাই লঘু হয়ে যাবে।’’

বাবার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে আলাদা করে জানিয়েছেন, ‘পরিচিত, অপরিচিত অনেকের কথায় ভরসা দিয়েছেন। আমি বিশ্বাস করি, সত্যিটা এক দিন সামনে আসবেই।

এ বাদ দিয়ে আর কিছু বলতে চাই না এই প্রসঙ্গে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.