×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৩ মে ২০২১ ই-পেপার

প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোভিড আক্রান্ত ‘বেপাত্তা’, উদ্বেগে বেঙ্গালুরু

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু ২৬ জুলাই ২০২০ ১২:৫৬
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

বেঙ্গালুরুতে কোভিড আক্রান্ত তিন হাজার ৩৩৮ জনের কোনও হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না। এই বিপুল সংখ্যক আক্রান্তের হদিশ না মেলায় বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন প্রশাসন। বৃহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা (বিবিএমপি) জানিয়েছে, আক্রান্তদের সকলেই কোভিড পজিটিভ। তাঁদের যত দ্রুত সম্ভব চিহ্নিত করার কাজ চলছে বলে জানিয়েছে বিবিএমপি।

কেন এমনটা হল? এর পিছনে কি কোনও প্রশাসনিক গাফিলতি রয়েছে? বিষয়টি সামনে আসার পর এমন নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কর্নাটকে করোনা পরিস্থিতি খুব খারাপ। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তার মধ্যে এমন একটা ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে বিবিএমপি-কে।

যদিও বিবিএমপি-র তরফে দাবি করা হয়েছে, কোভিড আক্রান্ত যে সব রোগীর হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না, তাঁরা নিজেদের সঠিক তথ্য দিতে অস্বীকার করায় এমন ঘটনা ঘটেছে। বিবিএমপি-র কমিশনার মঞ্জুনাথ প্রসাদ বলেছেন, “শহরে কোভিড পজিটিভ এমন তিন হাজার ৩৩৮ জনকে চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। কেননা, এই আক্রান্তরা যখন পরীক্ষার জন্য গিয়েছেন, সেখানে প্রয়োজনীয় নথিতে ভুল ঠিকানা, নাম এমনকি ভুল ফোন নম্বর দিয়েছেন। তাঁদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী খোঁজ করতে গিয়ে দেখা গিয়েছে, ওই নামের ব্যক্তি সেই এলাকাতেই থাকেন না। ফলে বিপত্তি আরও বেড়েছে।”

আরও পড়ুন: মৃত্যু ছাড়াল ৩২ হাজার, দেশে করোনা আক্রান্ত প্রায় ১৪ লক্ষ

সবচেয়ে উদ্বেগের কারণ, গোটা কর্নাটকে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় অর্ধেক এই বেঙ্গালুরু থেকেই মিলেছে। বিবিএমপি বলছে, সেই উদ্বেগ আরও বাড়িয়েছে আক্রান্তদের ভুল নথি দেওয়ার বিষয়টি। পাশাপাশি তারা এটাও জানিয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব ‘নিখোঁজ’ হওয়া এই আক্রান্তদের খুঁজে বার করা হবে। এবং সেই কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে।

শনিবার কর্নাটকে এক দিনে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ৭২ জন। যার মধ্যে দু’হাজার ৩৬ জনই শুধু বেঙ্গালুরুর। রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত বেঙ্গালুরুতে। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩ হাজার ৫০৩। তার পরেই রয়েছে দক্ষিণ কন্নড় এবং কালবুর্গি জেলা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী কর্নাটকে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজার ৯৪২। মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১৮০০ জনের।

Advertisement
Advertisement