Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Heavy Rainfall: প্রবল বৃষ্টিতে দুর্ভোগ দিল্লির

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২২ অগস্ট ২০২১ ০৭:১৮
জলমগ্ন দিল্লি-গুরুগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ে। শনিবার। পিটিআই

জলমগ্ন দিল্লি-গুরুগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ে। শনিবার। পিটিআই

দিনভর বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত দিল্লি। মধ্য-দিল্লির প্রগতি ময়দান থেকে দক্ষিণে ধৌলা কুয়াঁ, রাজধানীর বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন। সেই সঙ্গে ভয়ানক যানজটে হাসফাঁস দশা বাসিন্দাদের।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, সফদরজং অবজ়ারভেটরির রেকর্ড অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। একটানা ভারী বৃষ্টিতে শহরের ব্যস্ততম এলাকাগুলি, যেমন, ধৌলা কুয়াঁ, মোতি বাগ, আইটিও, বিকাশ মার্গ, মথুরা রোড, প্রগতি ময়দানের আশপাশ, মেহরৌলি-বদরপুর রোড, সরাই কালে খান এবং রোহতক রোড পুরোপুরি জলের তলায় যায়। বিঘ্ন ঘটে মেট্রো চলাচলে। মাটির তলায় স্টেশনে জল জমে যাওয়ায় সাকেত মেট্রো স্টেশনে যাত্রীদের প্রবেশ সাময়িক ভাবে বন্ধ করে দেয় দিল্লি মেট্রো রেল কর্পোরেশন (ডিএমআরসি)। সংস্থার পক্ষ থেকে পরে অবশ্য টুইট করা হয়, ‘‘প্রবেশ ও বাইরে বেরোনোর গেটে জল জমে যাওয়ার জন্য বন্ধ রাখা হয়েছিল। তবে মেট্রো রেল পরিষেবা স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে।’’ রাজপথ-রফি মার্গের কাছে রাস্তার একাংশ ভেঙে যায়। ওই রাস্তা দিয়ে গাড়ি নিয়ে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ কর হয় দিল্লি ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে। অন্য রাস্তাগুলির অবস্থাও অবশ্য বেশ খারাপ ছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি-ভিডিয়ো আপলোড করে বাসিন্দাদের অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বেশ কিছু রাস্তায় এতই জল ছিল, বাসের মধ্যে জল ঢুকে যায়। আসনের উপরে পা তুলে বসতে হয় যাত্রীদের।

ডিফেন্স কলোনি, বসন্ত কুঞ্জ, সোম বিহার, লাজপত নগর সেন্ট্রাল মার্কেটের মতো বেশ কিছু এলাকায় বাড়িতেও জল ঢুকে যায়। ডিফেন্স কলোনির বাসিন্দা রঞ্জিত সিংহ বলেন, ‘‘নিকাশি নালা উপচে
বাড়ির ভিতরে জল ঢুকে গিয়েছে। নিকাশি নালাগুলো সাফ রাখার জন্য প্রতি বছর আমরা অনুরোধ করি। কিন্তু পুরসভা কিছু করে না। রাস্তায় জল, বাড়িতে জল। দক্ষিণ দিল্লি পুরসভা ও পুরপিতার অকর্মণ্যতার জন্য এই অবস্থা।’’ দক্ষিণ দিল্লিতে আজ দু’টি পুরনো বাড়ি ভেঙে পড়েছে। বেশ কিছু গাছ ভেঙেছে। পুরসভার কাছে অন্তত ৫০টি অভিযোগ জমা পড়েছে। এক বাসিন্দার অভিযোগ, ‘‘দিল্লির রাস্তাঘাট, উড়ালপুল, আন্ডারপাস— কোনও কিছু ঠিক মতো পরিকল্পনা করে তৈরি নয়। শহরের নকশায় এত গলদ রয়েছে, যে বৃষ্টি হলেই এই অবস্থা হয়। তার উপর নিকাশি ব্যবস্থার হালও ভয়ানক।’’

Advertisement

বৃষ্টি-বিপর্যয়ে দিনের শেষে একটাই ভাল খবর। গরম একধাক্কায় অনেকটা কমে গিয়েছে। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, শহরের তাপমাত্রা নেমে এসেছে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম।

আরও পড়ুন

Advertisement