Advertisement
০১ অক্টোবর ২০২২
PK

Prashant Kishore: বিহারে নতুন সরকার, সাধারণ মানুষের কি লাভ হবে? টুইটারে ভোট চালু প্রশান্ত কিশোরের

বিহারে নীতীশ আর লালুপ্রসাদের দলের নতুন সরকার নিয়ে সাধারণ মানুষের মতামত জানতে চান প্রশান্ত কিশোর। টুইটারে শুরু করলেন অনলাইন ভোট অভিযান।

২০১৫ সালে মহাজোট গড়ার নেপথ্যে ছিলেন এই প্রশান্তই।

২০১৫ সালে মহাজোট গড়ার নেপথ্যে ছিলেন এই প্রশান্তই। — ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
পটনা শেষ আপডেট: ১৯ অগস্ট ২০২২ ১৯:০৪
Share: Save:

বিহারে লালুপ্রসাদ যাদবের দল রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি)-র সঙ্গে হাত মিলিয়ে নতুন সরকার গড়েছে নীতীশ কুমারের জনতা দল ইউনাইটেড (জেডিইউ)। এই নিয়ে টুইটারে মতামত জানতে চাইলেন একদা নীতীশ-ঘনিষ্ঠ প্রশান্ত কিশোর।

নিজের সরকারি টুইটার অ্যাকাউন্টে অনলাইন এই পোল শুরু করেছেন ভোট-কুশলী প্রশান্ত। টুইটার ব্যবহারকারীদের হ্যাঁ বা না-তে জবাব দিয়ে ভোট দিতে হবে। টুইটারে প্রশান্ত লিখেছেন, ‘গত ১০ বছরে সরকার গঠনের বিষয়ে এই নিয়ে ষষ্ঠ বার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালালেন নীতীশ। আপনাদের কি মনে হয়, এ বার বিহারের মানুষ লাভবান হবেন?’

২০১৫ সালে লালুর দলের সঙ্গে জোট গড়ে বিহারে ক্ষমতায় এসেছিল জেডিইউ। মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন নীতীশ। সেই মহাজোট গড়ার নেপথ্যে ছিলেন এই প্রশান্তই। দু’বছরের মাথায় সেই জোট ভেঙে এনডিএ-তে ফেরেন নীতীশ। ২০২০ সালে সেই এনডিএর সঙ্গে জোট গড়েই বিহারে আবারও ক্ষমতায় আসেন তিনি। দু’বছরের মাথায় এনডিএর হাত ছেড়ে আরজেডি, বাম, কংগ্রেসের হাত ধরে আবার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ।

কিন্তু এ বারের মহাজোট নিয়ে খুব একটা আশাবাদী নন প্রশান্ত। বরং বার বার নীতীশকে খোঁচা দিয়েছেন। তাঁর মতে, ২০২৪ লোকসভা নির্বাচন পর্যন্ত টিকতে পারে এই জোট। বিহারের পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচন পর্যন্ত এই জোট সরকার থাকবে না। তিনি যা ভাবছেন, বাকিরাও তা-ই ভাবছেন কি না, জানতে এবার টুইটারে ভোট অভিযান শুরু করে দিলেন প্রশান্ত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.