Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২
Narendra Modi

বঙ্গের ভোট টেনে ‘দাদা’ সৌগতকে তীব্র কটাক্ষ মোদীর, তবে ধন্যবাদ মহুয়াদের

মোদীর ওই বক্তব্যের পরে কক্ষের ভিতর হইচই শুরু করে তৃণমূল। প্রশ্ন তোলে, বিজেপি নেতারা শুধুমাত্র বাংলাকে কেন এত গুরুত্ব দিচ্ছেন?

সৌগত রায়, নরেন্দ্র মোদী ও মহুয়া মৈত্র।

সৌগত রায়, নরেন্দ্র মোদী ও মহুয়া মৈত্র। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২০:১৯
Share: Save:
আরও পড়ুন:

তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়কে বরাবরই তিনি ‘দাদা’ বলেন। বলেন এবং সে ভাবেই খোঁচা দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যেমন লোকসভায় দিলেন বুধবার। তবে ‘দাদা’ সৌগতর লোকসভার সতীর্থ মহুয়া মৈত্রের প্রসঙ্গ মোদীর বক্তৃতায় আসেনি। বরং তিনি ধন্যবাদ দিয়েছেন কক্ষের সমস্ত মহিলা সাংসদকে।

Advertisement

লোকসভার বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির বক্তৃতার উপর বিতর্কের জবাবী ভাষণ দিতে গিয়ে সৌগতকে কটাক্ষ করেছেন মোদী। বলেন, ‘‘দাদা, ভাষণ ভাল দিলেন। আমি ভেবেছিলাম দাদা, আপনি অনেক অভ্যাস করে এসেছেন। অনেক ভাল কথা বলবেন। কিন্তু আপনি তো বেশি সময় ধরে বলে গেলেন, আমি আর আমার সহকর্মীরা কেন বাংলায় বেশি যাচ্ছেন? কোথায় যাচ্ছেন? তাই-ই বলে গেলেন!’’ এর পরেই সৌগতর জ্ঞান থেকে তিনি ‘বঞ্চিত’ হয়েছেন বলে কটাক্ষ করেন মোদী। প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘‘দাদা, এবার আপনার জ্ঞান থেকে বঞ্চিত হয়ে রইলাম। (বাংলায়) ভোটের পর সুযোগ এলে আপনার কাছে শুনব।’’

সৌগতকে বিদ্ধ করে মোদীর ওই বক্তব্যের পরে কক্ষের ভিতর হইচই শুরু করেন তৃণমূল সাংসদরা। তাঁরা প্রশ্ন তোলেন, অন্য রাজ্যে ভোট থাকলেও বিজেপি নেতারা শুধুমাত্র বাংলাকে কেন এত গুরুত্ব দিচ্ছেন? এর পর কিছুক্ষণ চুপ থেকে আবার পাল্টা আক্রমণ করেন মোদী। বলেন, ‘‘এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য। সেই জন্যই তো আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি। আপনারা বাংলাকে এত পিছনে ফেলে দিয়েছেন যে, আমরা বাংলাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছি।’’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সংসদে মহুয়ার বক্তৃতায় বির্তক তৈরি হয়েছিল। কৃষ্ণনগরের সাংসদ দেশের বিচারব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। যার জেরে তাঁর বক্তব্য সংসদের কার্যবিবরণী থেকে বাদ দেওয়া হয়। বিজেপি সাংসদরা মহুয়ার বক্তব্য হইচই শুরু করেছিলেন। তবে অর্থনীতিবিদ কৌশিক বসু আবার টুইটারে মহুয়ার বক্তৃতাকে ‘সেরা’ বলে আখ্যা দেন। সবমিলিয়ে, সংসদের বাজেট অধিবেশনে ‘খবরে’ ছিলেন মহুয়া। তাঁর ‘আক্রমণাত্মক’ বক্তব্য নিয়ে জাতীয় রাজনীতিতেও শোরগোল পড়েছে। তবে বিজেপি সাংসদরা হইচই বাধালেও বুধবার মহুয়াকে নিয়ে কোনও কথাই বলেননি মোদী। উল্টে কক্ষের সমস্ত মহিলা সাংসদকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী। বিজেপি-র একাংশের দাবি, মহুয়ার বক্তব্যকে ‘উপেক্ষা’ করতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যার জবাবে তৃণমূল বলছে, ‘‘আসলে প্রধানমন্ত্রীর জবাব দেওয়ার জায়গা ছিল না। তাই উনি কৌশলে মহুয়ার বক্তব্যকে পাশ কাটিয়ে সব মহিলা সাংসদকে ধন্যবাদ দিয়ে লোকসভা ছেড়েছেন।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.