Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Rahul Gandhi: জম্মু-কাশ্মীরে পূর্ণ রাজ্যের দাবি রাহুলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
শ্রীনগর ১১ অগস্ট ২০২১ ০৮:৪৩
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

দিল্লির আক্রমণের শিকার জম্মু-কাশ্মীর, আজ শ্রীনগরে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এ ভাবেই সুর চড়ালেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী। এর পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীরকে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা দেওয়ার দাবিও জানিয়েছেন রাহুল।

দু’দিনের সফরে গত কাল উপত্যকায় পৌঁছেছেন রাহুল। আজ ক্ষীর ভবানী মন্দির এবং হজরতবাল মসজিদে যান রাহুল। সঙ্গে ছিলেন কে সি বেণুগোপাল এবং দলের জম্মু-কাশ্মীরের দায়িত্বপ্রাপ্ত রজনী পাটিল।

কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ নিয়ে ইতিমধ্যেই সংসদে প্রতিবাদে শামিল হয়েছে বিরোধী দলগুলি। সেই সুরই উঠে এল মৌলানা আজাদ রোডে জম্মু-কাশ্মীর কংগ্রেসের সদর দফতরে রাহুলের বয়ানে। আজ তিনি বলেছেন, ‘‘শুধু যে জম্মু-কাশ্মীরই কেন্দ্রের আক্রমণের শিকার তা নয়, পশ্চিমবঙ্গ, তামিলনাড়ুর মতো ভারতের অন্যান্য প্রান্তের বেশ কিছু রাজ্যও কেন্দ্রের বিভেদমূলক নীতির শিকার।’’ যদিও জম্মু-কাশ্মীরের ক্ষেত্রে কেন্দ্রের আক্রমণ প্রকট বলে উল্লেখ করেছেন রাহুল।

Advertisement

কাশ্মীরের দাবিদাওয়া নিয়ে সওয়ালের পাশাপাশি ফের নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করে রাহুল জানিয়েছেন, মোদীর বিভেদমূলক নীতির বিরুদ্ধে তাঁর লড়াই জারি থাকবে। যত ক্ষণ না জয় আসে, তিনি হাল ছাড়বেন না।

আজ কংগ্রেসের অবস্থান স্পষ্ট করে তিনি ফের জানিয়েছেন, পূর্ণ রাজ্যের স্বীকৃতির পাশাপাশি উত্তরের এই রাজ্যে শীঘ্রই বিধানসভা নির্বাচনের পক্ষে তাঁরা।

প্রবীণ কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ পরামর্শ দিয়েছিলেন, এ নিয়ে বিল পেশ করা হোক। সেই প্রসঙ্গ তুলে ধরে রাহুল বলেন, ‘‘আমাকে সংসদে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেওয়া হয় না। রাফাল, বেকারত্ব কিংবা দুর্নীতি নিয়ে আমি বলতে পারি না। ওরা (বিজেপি) বিচার বিভাগ, লোকসভা এমনকি সংবাদমাধ্যমের কণ্ঠও রোধ করছে।’’

আজাদও পূর্ণ রাজ্যের দাবি তুলে জানিয়েছেন, তাঁরা চান না, দিল্লি কিংবা পুদুচেরির দশা হোক জম্মু-কাশ্মীরের।

জম্মু-কাশ্মীরে ক্ষমতায় থাকাকালীন কংগ্রেসের বিভিন্ন কাজের প্রসঙ্গও উল্লেখ করেছেন রাহুল। তাঁর কথায়, ‘‘সেই সময়ে উড়ান প্রকল্প চালু করা হয়েছিল। শুরু হয়েছিল পঞ্চায়েত নির্বাচন। কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে আসা হয়েছিল বিশেষজ্ঞদের। কাশ্মীরের যুবল সম্প্রদায়কে অন্যত্র পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু ওদের (বিজেপি) আক্রমণ থেকে বাদ যায়নি সেই প্রক্রিয়াগুলিও।’’

জম্মু-কাশ্মীরের বাসিন্দাদের পাশে দাঁড়িয়ে রাহুল জানিয়েছেন, তাঁদের বেদনা অনুভব করেন। পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন। সেখানকার মানুষের ভালবাসার সংস্কৃতির উল্লেখও উঠে এসেছে রাহুলের বক্তব্যে। সেই জন্যেই অনুচ্ছেদ ৩৭০ রদের পরে কিংবা কোভিড সংক্রমণ শুরুর পরে বার বার তিনি জম্মু-কাশ্মীরে পৌঁছনোর চেষ্টা করেছেন, কিন্তু বিজেপি সরকার রুখে দিয়েছে তাঁর সফর।

আজ কাশ্মীরের সঙ্গে তাঁর বন্ধনের বিষয়টিও রাহুল তুলে ধরেছেন। রাহুল জানান, বর্তমানে দিল্লির বাসিন্দা হলেও এক সময়ে তাঁর পূর্বপরুষ কাশ্মীরের বাসিন্দা ছিলেন। বংশ পরম্পরায় কাশ্মীরিয়ত তাঁর মধ্যে রয়েছে। শীঘ্রই তিনি জম্মু ও লাদাখ সফরেও যাবেন বলে ঘোষণা করেছেন।



Tags:

আরও পড়ুন

Advertisement