Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কংগ্রেস হাইকম্যান্ড ক্ষমা করলে বিদ্রোহীদের ফের স্বাগত জানাব: অশোক গহলৌত

গহলৌত জানিয়েছেন, সচিনদের নিয়ে কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর ০১ অগস্ট ২০২০ ১৯:০৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
সচিনকে কি ফের কাছে টেনে নেবেন গহলৌত? ছবি: সংগৃহীত।

সচিনকে কি ফের কাছে টেনে নেবেন গহলৌত? ছবি: সংগৃহীত।

Popup Close

সচিন পাইলটের সঙ্গে দ্বৈরথ প্রকাশ্যে আসার পর তাঁকে ‘নিকম্মা’ বলতেও ছাড়েননি। রাজস্থানের সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে বিজেপির সঙ্গে সচিন হাত মিলিয়েছেন, এমন গুরুতর অভিযোগও করেছেন বার বার। তবে বিধানসভা অধিবেশন শুরুর আগে সেই পাইলটের প্রতি সুর নরম করলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত। জানালেন, কংগ্রেস হাইকম্যান্ড ক্ষমা করলে ফের ফিরিয়ে নিতে রাজি সচিন-সহ বিদ্রোহী ১৯ বিধায়ককে। পাশাপাশি, মরু-রাজ্যে সরকার ফেলে দেওয়ার চক্রান্ত রুখতে খোদ নরেন্দ্র মোদীর কাছেই আর্জি জানালেন গহলৌত।

শনিবার জয়সলমেরে সাংবাদিকদের গহলৌত জানিয়েছেন, সচিনদের নিয়ে কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে। এমনকি, কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব বিদ্রোহীদের ক্ষমা করে দিলে, তাঁদের বরণ করে নিতেও রাজি তিনি। তাঁর কথায়, “কংগ্রেস হাইকম্যান্ড যদি বিদ্রোহীদের ক্ষমা করে, তবে আমিও ফের তাঁদের স্বাগত জানাব।”

রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রের সঙ্গে গহলৌত সরকারের টানাপড়েনের পর অবশেষে রাজস্থান বিধানসভার অধিবেশন শুরু আগামী ১৪ অগস্ট। রাজ্যপালের অনুমোদন মিলতেই কংগ্রেস বিধায়কদের বিজেপি শিবিরের হাত থেকে ‘রক্ষা’ করতে উঠেপড়ে লেগেছেন গহলৌত। প্রথমে জয়পুরে থাকলেও আপাতত জয়সলমেরের হোটেলে রয়েছেন তাঁরা। মুখ্যমন্ত্রী নিজেও সেখানে ছিলেন। ওই হোটেল থেকে ফেরার পথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিজেপি শিবিরের দিকে ফের এক বার নিজের ক্ষোভ উগরে দেন গহলৌত। রাজস্থানের কংগ্রেস সরকারে উল্টে ফেলতে বিজেপির ‘প্রচেষ্টা’ নিয়েও সরব হন তিনি। গহলৌতের কথায়, “কারও সঙ্গেই আমাদের বিবাদ নেই। গণতন্ত্রে মতাদর্শ, নীতি বা কর্মসূচি নিয়ে লড়াই হতেই পারে। তবে সরকার ফেলে দেওয়া নিয়ে নয়।”

Advertisement

আরও পড়ুন: সিঙ্গাপুরে প্রয়াত অমর সিংহ, কিডনির অসুখে ভুগছিলেন দীর্ঘ দিন

আরও পড়ুন: এ বার মোদীর দ্বারস্থ সুশান্তের পরিবার, রিয়া সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য দেহরক্ষীর

বিজেপিকে আক্রমণ করলেও এ নিয়ে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে হস্তক্ষেপ করার আর্জি জানিয়েছেন গহলৌত। তিনি বলেন, “রাজস্থানে যা কিছু চলছে, তা থামানো উচিত মোদীর।” রাজস্থানের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে মোদীকে চিঠি লেখা ছাড়াও তাঁর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন গহলৌত। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-ই যে রাজস্থান সরকারের পিছনে উঠেপড়ে লেগেছেন, সে অভিযোগও করেছেন তিনি। দেশের গণতন্ত্র বিপন্ন বলে দাবি করে গহলৌতের অভিযোগ, সরকার ফেলতে কংগ্রেসের বিধায়কদের কেনার জন্য দর বাড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি।

তবে এক দিকে বিজেপি শিবিরের দিকে আক্রমণ তীব্র করলেও সচিন শিবিরের জন্য দরজা খোলা রাখার ইঙ্গিত মিলেছে গহলৌতের মন্তব্যে। এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক শিবিরের একাংশ।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement